বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নয়জন নারী ও দুজন পুরুষ—মোট এগারোজন ছয় সপ্তাহ ধরে এই পপতারকার যৌন অবমাননা ও সহিংসতার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন। শুনানি শেষে বিচারকেরা এই মার্কিন শিল্পীকে নয়টি অভিযোগেই দোষী সাব্যস্ত করেছেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে নারী পাচারের জন্যও তাঁকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। যৌন নিপীড়নের জন্য নারী পাচারের আটটি মামলার পাশাপাশি প্রতারণার দায়েও তাঁকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। কেলির ম্যানেজার, নিরাপত্তা রক্ষী এবং অন্যান্য কর্মচারীরা কীভাবে এই অপরাধে তাঁকে সহযোগিতা করেছে তাও বিস্তারিত উল্লেখ করা হয়েছে আদালতে।

default-image

আদালতে একজন নারী লিখিত বিবৃতিতে জানান, কেলি তাঁকে বন্দী করে। মাদক সেবনে বাধ্য করে। এমনকি ধর্ষণও করে। কেলির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ অনার পরে ওই নারীকে হুমকি দেওয়া হয়। এরপর থেকে কেলির কাছ থেকে তিনি পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ওই নারী জানান, এখন তিনি ভয়হীন একটি জীবন যাপন করার জন্য প্রস্তুত।

‘আই বিলিভ আই ক্যান ফ্লাই’ গান দিয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান র‍্যাপার ও পপতারকা আর. কেলি।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন