এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্ট্রিমিং সাইটটি বলে, ‘এই প্রথম কোনো গান এত কম সময়ে ১০০ মিলিয়ন স্ট্রিমিংয়ের রেকর্ড গড়ল। এটা আমাদের স্ট্রিমিংয়ের জন্য দারুণ খবর। সাইরাসের জন্য গানটি ছিল নতুন বছরে ভক্তদের উপহার। গানটি মুক্তির পর থেকে সাড়া ফেলেছিল। সাত দিনের মাথায় গানটি আমাদের দারুণ এক সুখবর দিল। কারণ,  বিটিএসের রেকর্ড ভাঙা আমাদের কাছে অবিশ্বাস্য ঘটনা। “ফ্লাওয়ারস” স্পটিফাইয়ে একটি ইতিহাস তৈরি করল।’

স্পটিফাইতে এর আগের রেকর্ডটি ছিল বিটিএসের দখলে। কোরীয় ব্যান্ডটির গান ‘বাটার’ বিশ্বব্যাপী দর্শকদের প্রশংসা পেয়েছিল। গানটি সেই সময় স্পটিফাইয়ে প্রথম সপ্তাহে ৯৯.৩৭ মিলিয়ন বার শোনা হয়েছিল। ১০০ মিলিয়ন স্ট্রিমিংয়ের রেকর্ড গড়তে গানটির আট দিন লেগে যায়। ‘বাটার’ মুক্তি পায় ২০২১ সালে। সেই সময় বিটিএসের এই গানটি বিলবোর্ডের শীর্ষ তালিকায় ছিল দীর্ঘদিন। গানটি এখন পর্যন্ত এক ঘণ্টায় সর্বাধিকবার দেখা তালিকায় রয়েছে।

‘ফ্লাওয়ারস’ গানটিকে মুক্তির পর থেকে আরেকটি গান ‘কিল বিল’–এর সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে হয়েছে। ‘কিল বিল’ গানটি স্পটিফাইয়ের শীর্ষ ৫০ গানের ৩ নম্বরে রয়েছে। ১ নম্বরে থাকা সাইরাসের গানটি ইউটিউবেও দেখা হয়েছে ৭০ মিলিয়ন বার। মাইলি ভক্তদের ধন্যবাদ জানিয়ে টুইটারে লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ বিস্ময়কর ভক্তরা।’
মাইলির এমন রেকর্ডে স্পটিফাই মজা করে টুইটার পোস্টে লিখেছে, ‘সে তার নিজের ফুলগুলো কিনতে পারে।’ ‘ফ্লাওয়ারস’ বা ফুল শিরোনামের গানের কথাই মজা করে লিখেছে তারা।