দেশীয় সংগীতের পৃষ্ঠপোষকতা করতে ও সংগীতের নানা শাখায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা জোগাতে চ্যানেল আই আয়োজন করে আসছে ‘চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস’। গতকাল মঙ্গলবার এই আয়োজনের ১৭তম আসর অনুষ্ঠিত হয়। পদ্মা সেতুর পশ্চিম প্রান্তের শেখ রাসেল সেনানিবাসে গতকাল সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় ‘ঐক্য ডট কম ডট বিডি চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস ২০২২’–এর জমকালো আসর।

আজীবন সম্মাননাপ্রাপ্তির পর রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা জানালেন, স্বীকৃতি ও সম্মান একজন শিল্পীর দায়বদ্ধতা বাড়িয়ে দেয়। তিনি বললেন, ‘এমন স্বীকৃতি পেয়ে আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। এমন স্বীকৃতি ও সম্মান সব সময়ই আনন্দদায়ক। প্রত্যেক শিল্পীই কাজের স্বীকৃতি পেতে চায়। আজ আমাকে যে সম্মান দেওয়া হলো, এতে সৃষ্টিকর্তা, আমার মা-বাবা, শ্রোতা, আমার ছাত্রছাত্রী—সবার কাছেই কৃতজ্ঞতা। যখন এমন সম্মাননা পাই তখন ভাবতে থাকি, আসলে আমি এর যোগ্য কি না! সেই যোগ্য যেন হয়ে উঠতে পারি, সব সময় সেই প্রার্থনা করি।’

অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন রুনা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমীন, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, নকিব খান, কুমার বিশ্বজিৎ, সামিনা চৌধুরী, ফাহমিদা নবী, মমতাজ, মানাম আহমেদ, শামা রহমান, শফি মণ্ডল, হাবিব ওয়াহিদ, কোনাল, ইমরান, ঝিলিক, সাব্বির, অণিমা রায়, সায়রা রেজা, কিশোর এবং চ্যানেল আইয়ের বিভিন্ন সময়ের রিয়েলিটি শো সেরাকণ্ঠ, ক্ষুদে গানরাজ, গানের রাজা ও বাংলার গায়েনের শিল্পীরা।

বিভিন্ন গানের পরিবেশনায় অংশ নেন বিদ্যা সিনহা মিম, শরিফুল রাজ, সিয়াম, নুসরাত ফারিয়া, সাবিলা নূর, দীঘি প্রমুখ।

চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘যাঁরা গান পরিবেশন করেন বা সংগীতের জগতের সঙ্গে থাকেন বা শিল্প–সাহিত্যের জগতের সঙ্গে থাকেন—তাঁরা কেউই সেটা পুরস্কারের জন্য করেন না। তাঁরা সেটা ভালো লাগা থেকে করেন, যা থেকে আমরা সবাই আনন্দিত হই। আমরা তাদের সম্মানিত করে আনন্দিত হই।’
১৭তম চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডসের উপস্থাপনা করেছেন সংগীতশিল্পী কোনাল আর অপু মাহফুজ।