সেলেনা গোমেজ
ছবি: এএফপি

ইনস্টাগ্রামে নারী তারকাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অনুসারী সেলেনা গোমেজের। কিছুদিন আগেই কাইলি জেনারকে টপকে শীর্ষ স্থান দখল করেন তিনি। তবে শীর্ষে পৌঁছেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে বিরতির ঘোষণা দিয়েছেন এই গায়িকা-অভিনেত্রী। সেলেনা তাঁর ভ্যারিফায়েড টিকটক অ্যাকাউন্টের লাইভে এসে এ ঘোষণা দেন।

আরও পড়ুন

সেলেনা গোমেজকে হয়রানি করেছিলেন জাস্টিন বিবার

বিরতির কারণ জানিয়ে সেলেনা বলেন, ‘আমি দ্বিতীয়বারের মতো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে বিরতি নিচ্ছি। কারণ, আমার বয়স ৩০ পার হয়েছে। এসব করার জন্য আমার বয়স একটু বেশিই হয়ে গেছে।’ সেখানে তিনি ভক্তদের উদ্দেশে বলেন, ‘সারা বিশ্বের এত ভক্ত ও বন্ধু পেয়ে আমি ধন্য। আপনাদের ভালোবাসায় আমি ভালো আছি। আপনাদের আমি অনেক ভালোবাসি। আপাতত সবকিছু থেকে বিদায় নিচ্ছি। শিগগিরই আপনাদের সঙ্গে আবার দেখা হবে।’

সেলেনা গোমেজ

তিনি তাঁর এই ভিডিওতে সরাসরি না বললেও বিরতির জন্য ইঙ্গিতে অভিযুক্ত করেছেন কাইলি জেনার ও হেইলি বিবারকে। মার্কিন গণমাধ্যমের তথ্যানুসারে সেলেনার অভিযোগ, কাইলি জেনার ও হেইলি বিবার সেলেনার ভ্রু নিয়ে উপহাস করেছেন। এ ছাড়া তাঁর কাছের বন্ধু টেইলর সুইফটকে ইঙ্গিত করে অপমানজনক কথা বলেছেন। তবে তাঁর অভিযোগ মানতে নারাজ কাইলি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ‘সেলেনার সঙ্গে আমার কোনো বিরোধ নেই, তাঁর ভ্রু নিয়ে পোস্টও দেখিনি! আপনারা কিছু না জেনে এগুলো ছড়িয়ে দিচ্ছেন।’

সেলেনা গোমেজ ও টেইলর সুইফট

টেইলর সুইফটকে অপমানজনক কথা বলা প্রসঙ্গে সেলেনা গোমেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লেখেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে বিরতি নিচ্ছি। আমার বন্ধুদের রক্ষা করার অধিকার আমার আছে। আপনি আমার সম্পর্কে যা খুশি বলুন, কিন্তু আমার লোকেদের জন্য আমি মরতে পারি।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে সেলেনা গোমেজ দ্বিতীয়বারের মতো বিরতি নিলেন। এর আগে তিনি ২০১৮ সালে বিরতি নিয়েছিলেন। সেবার তিনি ফিরতে সময় নিয়েছিলেন চার বছর।

আরও পড়ুন

নস্টালজিক সেলেনা গোমেজ