default-image

মিউজিক্যাল ফিল্মটি নিয়ে কুসুম বলেন, ‘একটি ব্লুজ মেলোডি গান নিয়ে তৈরি হয়েছে ফিল্মটি। গানের কথার গল্পের সঙ্গে মিলিয়ে ভিডিও করা হয়েছে।’ গানে ফিরতে দীর্ঘ বিরতির কারণ জানিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘অভিনয় শুরু করার পর তো নিয়মিত গান করা হয় না। এখন শখের বসেই করি। পাঁচ বছর আগে “নেশা” করেছিলাম। অনেক দিন পর আরেকটি করলাম। বলতে পারেন “নেশা”র পাঁচ বছর পূর্তিতে গানটি করা। সুন্দর একটা কাজ হয়েছে।’

default-image

কুসুম শিকদার মূলত অভিনেত্রী হলেও গানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক সেই ছোটবেলা থেকেই। এর আগে তাঁর গাওয়া একক অ্যালবাম ‘তুমি আজ কত দূরে’ ও দুটি মিক্সড অ্যালবাম ‘জীবনে যত চাওয়া’ ও ‘অদলবদল’ প্রকাশিত হয়েছে। নিজের গান নিয়ে কুসুম বলেন, ‘আমার শুরুটা কিন্তু গান দিয়েই। অভিনয় শুরুর আগেই তিনটি অ্যালবামে কাজ করেছি। লাক্স তারকা হওয়ার পর গানে ছেদ পড়ে। তবে অভিনয় নয়, গানটাই কিন্তু হাতে–কলমে শিখেছি। অভিনয়টা করতে করতে শেখা।’

default-image

‘মরীচিকা মায়া’ মিউজিক্যাল ফিল্মটি নির্মাণ করেছেন রায়হান খান। কুসুম জানান, ফিল্মের আদলেই শুটিং করেছেন তাঁরা। তিন দিন ধরে কক্সবাজার ও টেকনাফের সুন্দর সুন্দর লোকেশনে শুটিং করেছেন। মূলত মিউজিক্যাল ফিল্মটির গল্পের চাহিদা থেকেই কক্সবাজার ও টেকনাফের লোকেশন বেছে নেওয়া। মিউজিক্যাল ফিল্মটিতে গাওয়ার পাশাপাশি নিজেও অভিনয় করেছেন কুসুম। সঙ্গে ছিলেন মডেল কাজী সাকিব। মুক্তির জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত হলেও ‘মরীচিকা মায়া’ প্রকাশের দিনক্ষণ এখনো ঠিক হয়নি বলে জানান কুসুম।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন