বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

তিনি বলেন, ‘তখন আমার ক্যারিয়ারের পিক টাইম। আমি নিয়মিত কাজ করছি। এই সময়ে অনেক মূল ধারার সিনেমায় প্রস্তাব পেয়েছি। কিন্তু একটা দোটানায় থাকতাম। একসঙ্গে দুইটা হয় না। কারণ, সিনেমায় গেলে নাটকের ক্যারিয়ার মাইনাস হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা ছিল। তা ছাড়া মূল ধারার ছবির ব্যাপারে আমার অনাগ্রহ ছিল। কিন্তু ট্র্যাকের বাইরের কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছি। আর চলচ্চিত্র অভিনেতা হব, সেটাই ভাবিনি। আমি নাটকের অভিনেতা।’

default-image

চলচ্চিত্রে অভিনয় নিয়ে কোনো আফসোস আছে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘নাই। কারণ, আমার কাছে অভিনয় ছিল তৃষ্ণার মতো। আমি তো নিয়মিত অভিনয় করে সেটা পূরণ করে গেছি। নিয়মিত ভালো গল্প, চরিত্রে অভিনয় করেছি। অভিনয় করে আনন্দ পাচ্ছিলাম। আমরা যারা ছিলাম—আফসানা মিমি, শমী কায়সার, বিপাশা সবাই টেলিভিশনেই অভিনয়ের চেষ্টা করেছি। আর আমি অভিনয়কে পেশা হিসেবে নিব, এটাই ভাবিনি। তখন অভিনয়কে পেশা হিসেবে নেওয়ার মতো পরিস্থিতি ছিল না। সেই জায়গায় ক্যারিয়ারের যা করেছি, এতেই আমি খুশি।’

default-image

আজিজুল হাকিম বলেন, ‘আমি শাকিব খানের বাবার চরিত্রে অভিনয় করলেও আমাদের পর্দায় দেখা হচ্ছে না। কারণ, আমার সঙ্গে শাকিবের শৈশবের ঘটনাগুলো পর্দায় দেখা যাবে। এর আগে “শঙ্খনীল কারাগার”, “পদ্মা নদীর মাঝি”, “পুত্র” সিনেমাগুলোতে অভিনয় করে ভালো লেগেছে। আশা করছি, এটাও দর্শকদের পছন্দ হবে।’ এই অভিনেতা বর্তমানে ‘গোলমাল’, ‘বকুলপুর’, ‘দেনা পাওনা’সহ একাধিক ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন। তিনি সর্বশেষ অনুদানের ‘পুত্র’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন।

‘গলুই’ সিনেমাটি পরিচালনা করবেন এস এ হক অলিক। এই সময়ে এসেও এক তরুণ নৌকাবাইচের ঐতিহ্য টিকিয়ে রাখতে চান। এই নিয়েই এগিয়ে যায় সিনেমার গল্প।

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন