বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নাচ কি তাহলে জীবনে প্রথম দেখার সুযোগ হয়? ‘না, এর আগেও একবার সৌভাগ্য হয়েছিল। আর তা আমার সঙ্গে বিয়ের পর। এবার দেখলাম, বাবা হওয়ার খবরটা শোনার পর।’ বাবা হতে যাওয়া ফারুকীর এই নাচ কি ভিডিও করে অনাগত সন্তানের জন্য রেখে দিয়েছেন? তিশা বললেন, ‘পুরো ব্যাপারটা এত কুইক হয়ে গেছে, ভিডিও করার সময়টা পাইনি। সত্যি কথা বলতে, সরয়ারের কত পরিচয়! বাবার সেই ফিলিংসটা, বাবা হতে যাচ্ছে, আসলে ওর জন্যও বিশাল আনন্দের, তখনই বুঝতে পেরেছি।’

default-image

অভিনয়ে যাঁর দুই যুগের টানা পথচলা, সেই তিশাকে কয়েক মাস ধরে অভিনয়ের কোনো খবরে পাওয়া যাচ্ছিল না। এমনকি করোনার সময়ে স্টুডিওতে গিয়ে যিনি উপস্থাপনা করতেন, তিনি তাঁর বনানীর বাসা থেকে সেই উপস্থাপনার কাজ সেরে নেন। এদিকে খবর রটে, পা মচকে ঘরবন্দী তিনি। চিকিৎসক বলেছেন, পুরোপুরি বিশ্রাম নিতে। এর মধ্যে প্রথম আলো জানতে পারে, মা–বাবা হতে যাচ্ছেন তিশা ও ফারুকী।

default-image

মা হওয়া নারীর জীবনের অন্যতম একটি সুন্দর অধ্যায়। সেই খবরটা এত দিন প্রকাশ করতে না চেয়ে এই সময়ে প্রকাশ করার পেছনে কারণ কী, জানতে চাইলে তিশা বলেন, ‘মা হওয়া ও সন্তানের বিষয়টা একেবারেই ব্যক্তিগত বিষয়। এ কারণেই বিষয়টা ব্যক্তিগত রাখতে চেয়েছি। এটা স্পর্শকাতর বিষয় বলেও মনে করছি। মনে হয়েছে, একটা নির্দিষ্ট সময়েই এটা জানাব। আমার কাছে মনে হয়েছে, এখনই সেই সময়। আমার দর্শক, ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা যাঁরা আমাকে ভালোবাসেন, তাঁরা এই সুখবরটি শুনলে আমার জন্য দোয়া করবেন। সবকিছু মিলেই এখন জানানো।’

default-image

ভালোবেসে ২০১০ সালে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন নুসরাত ইমরোজ তিশা ও মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। মোস্তফা সরয়ার ফারুকী একদিন সাহস করে তিশার বাসায় বিয়ের প্রস্তাব পাঠান। এরপর বিয়ে করেন।

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন