বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

হঠাৎ করেই নাটকের জগতে এসেছিলেন হুমায়ূন আহমেদ। তার পেছনে কারণ ছিল অর্থ। সে সময় তাঁদের বাসায় কোনো টেলিভিশন ছিল না। তাঁর মেয়েরা নিচের বাসায় টেলিভিশন দেখতে যেত। একটি সাক্ষাৎকারে হুমায়ূন আহমেদ বলেছিলেন, ‘আমার বাচ্চারা নিচের বাসায় টেলিভিশন দেখতে গিয়ে হঠাৎ একদিন কাঁদতে কাঁদতে ফিরে এল। বলল, তাদের একটি টিভি কিনে দিতে হবে। তাদের পছন্দের প্রোগ্রাম দেখতে পারে নাই। শুনে বললাম, “ঠিক আছে আমি কিনে দেব।” তখন তারা বলল, রঙিন টিভি কিনে দিতে হবে। আমি রাজি হলাম।’

default-image

সে সময় হুমায়ূন আহমেদ হিসাব করে দেখেন, রঙিন টেলিভিশন কিনতে কত টাকা লাগবে। সেভাবেই তিনি নাটক লেখার পরিকল্পনা করেছিলেন। ‘আমি হিসাব করলাম, প্রতি এপিসোড কী পরিমাণ টাকা পাব। সেভাবেই বিটিভির জন্য ‘এইসব দিনরাত্রি’ নাটক লেখা শুরু করি। রঙিন টিভি কেনার টাকা হয়ে গেলেই নাটক লেখা বন্ধ করে দেব। যে মুহূর্তে রঙিন টিভি কেনার পয়সা হলো, সেই মুহূর্তেই নাটক লেখা বন্ধ করে দিই। সেই টাকা দিয়ে রঙিন টেলিভিশন কিনি। অর্থের জন্যই আমি নাটকটি লিখেছিলাম,’ বলেন হুমায়ূন আহমেদ।

default-image

হঠাৎ হুমায়ূনের এমন সিদ্ধান্তে আহত হয়েছিলেন অভিনয়শিল্পীরা। শিল্পীরা তখন হুমায়ূন আহমেদকে জানিয়েছিলেন, ‘আমরা এত আগ্রহ আর আনন্দ নিয়ে নাটকটিতে কাজ করছি, আর আপনি এককথায় লেখা বন্ধ করে দিলেন! আপনি আমাদের ছোট করেছেন।’ সব শুনে হুমায়ূন আহমেদ বলেছিলেন, ‘আমি তো কাউকে ছোট করি নাই। আমি সত্য কথা বলেছি। টেলিভিশন কিনব বলেই নাটক লিখেছিলাম।’

default-image
টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন