এরপর প্রচারিত হবে ‘ডালিম কুমার’। এতে অভিনয় করছেন এন কে মাসুক, সায়েম সামাদ, সামলি আরা সাইকা, শিশির আহমেদ, মীর আহসান, এস ডি তন্ময়, তাসনিম নিশাত ও শীলা। গল্পগুলোকে নাট্যরূপ দিয়েছেন ফজলুল করিম, এস এম সালাহউদ্দিন, বেলাল হোসেন ও শুভাশীষ দত্ত। জগদীশ এষের পরিকল্পনায় ২৬ পর্বের এ আয়োজনের প্রযোজনা করেছেন শাহজালাল সরদার।

‘হীরামন’-এর শুটিং হয়েছে বিটিভির স্টুডিওতে। লোককাহিনি ও লোকগাথা অবলম্বনে গল্পকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে আধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে ব্যবহৃত হয়েছে ভিএফএক্স প্রযুক্তি, অটো কন্ট্রোল মোশন ট্রাকিং, মোশন ক্যাপচার, থ্রিডি ফেস ক্লোনিং ও কম্পিউটার গ্রাফিকস।

বিটিভির পরিচালক (অনুষ্ঠান ও পরিকল্পনা) জগদীশ এষ বলেন, ‘আধুনিক ভার্চ্যুয়াল প্রযুক্তি ব্যবহার করে নির্মিত হয়েছে ‘হীরামন’। বিটিভিতে একসময় দারুণ জনপ্রিয় ছিল অনুষ্ঠানটি। আপাতত দুটি গল্প নিয়ে ২৬ পর্ব নির্মিত হয়েছে। ধারাবাহিকভাবে রূপকথার অন্য গল্পগুলোও নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। আমাদের বাংলা রূপকথা অনেক সমৃদ্ধ। সেগুলো ক্রমেই হারিয়ে যাচ্ছে। এগুলোকে আবার দর্শকের সামনে ফিরিয়ে আনতে বিটিভির এ উদ্যোগ, যাতে বর্তমান প্রজন্ম রূপকথায় আগ্রহী হয়।’