বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তোমরা কয় ভাইবোন?

জীবনে ভাইবোনের গুরুত্ব অপরিসীম। পৃথিবীতে নানা রকমের সম্পর্ক বিরাজমান। তন্মধ্যে ভাইবোনের সম্পর্কটা সবচেয়ে মধুর। মাঝেমধ্যে ভাইবোনের মধ্যে ভীষণ রকমের ঝগড়া হয়। তবে এটাকে ঠিক ঝগড়া বলাটা উচিত হবে না। এটা এক রকম মধুর সম্পর্কের বহিঃপ্রকাশ। কবি বলেছেন, ‘অভিভাবকদের কাছে পৃথিবীতে ভাইবোনের ঝগড়ার বিড়ম্বনার মতো আর কিছু নাই।’ আমরা চার ভাইবোন মা-বাবার খুব আদরের। আমরাও মাঝেমধ্যে মারামারি করি। অনেক দুষ্টুমি করি। এই তো কিছুদিন আগে ছোট ভাইটা আমার একটা এডিট ছাড়া ছবি ফেসবুকে আপলোড করেছিল। আমার যে কী রাগ হয়েছিল! উপরিউক্ত আলোচনা থেকে বলা যায় যে আমরা চার ভাইবোন।

default-image

তুমি কোন স্কুলে পড়ো?

শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড। যেকোনো জাতিকে উন্নতির শিখরে উঠতে হলে শিক্ষার ভূমিকা অনস্বীকার্য। শিক্ষা অর্জনের জন্য আমাদের একটা নির্দিষ্ট সময়ের পর স্কুলে পড়তে হয়। তার আগে বাসায় মা-বাবা সন্তানদের প্রাথমিক পাঠ সম্পন্ন করান। তবে ইদানীং মা-বাবারা অনেক ব্যস্ত থাকেন। সন্তানকে নিজে পড়ানোর মতো সময় পান না, গৃহশিক্ষক রাখেন। আমার বেলায়ও একই অবস্থা ছিল। বাসার পাঠ শেষে স্কুলে ভর্তি হয়েছিলাম। আমাদের স্কুলের পরিবেশ খুব সুন্দর। ফ্রি ওয়াই-ফাই আছে। ওয়াই-ফাইয়ের নাম ‘জ্ঞানময়ী জিপিএ-৫ উচ্চবিদ্যালয়’। সুতরাং আমরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারি যে আমি জ্ঞানময়ী জিপিএ-৫ উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্রী।

স্কুলে কীভাবে যাও?

এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়ার জন্য মানুষ যানবাহন ব্যবহার করে। এই বিষয়টাকে বলা হয় যোগাযোগব্যবস্থা। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশেও যোগাযোগব্যবস্থায় দারুণ উন্নতি হয়েছে। সড়ক, নৌ, রেল, উড়াল—সব পথেই অগ্রগতি। তবে মাত্রাতিরিক্ত যানজট সড়কপথের উন্নতিতে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে। এটা নিয়ে সরকারের পাশাপাশি অন্য পেশাজীবীদেরও ভাবতে হবে। তবে স্কুলে যেতে আমাকে কোনো ঝামেলা পোহাতে হয় না। আমরা থাকি ষষ্ঠ তলায়। ভবনের নিচতলায় আমাদের স্কুল। আমি লিফট দিয়ে চলাফেরা করি। অর্থাৎ আমি লিফট দিয়ে স্কুলে যাই।

তোমার শখ কী?

পৃথিবীতে হরেক রকমের মানুষের বাস। হরেক রকম মানুষের হরেক রকম শখ। নিজের শখের জন্য মানুষ কত কিছুই না করেছে। বলিউডের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র থ্রি ইডিয়টস-এ বলা হয়েছে, ‘মন যা চায় তা-ই করো। নিজের মনের কথা শোনো।’ এখানে মূলত শখের কথাই বলা হয়েছে। কারও শখ সিনেমা দেখা। কারও শখ ফেসবুকিং। কারও শখ অন্যের সমালোচনা করা। কারও শখ মিম বানানো। আমারও একটা শখ। পাঠ্যবই পড়া। অবসরে আমি নিয়মিত পাঠ্যবই পড়ি।

default-image

রাতে খেয়েছ?

ক্ষুধা নিবারণের জন্য মানুষ যা খায়, তা-ই খাদ্য। কথায় আছে, ‘পাগলে কী না বলে, ছাগলে কী না খায়।’ এ থেকে সহজেই খাদ্যের গুরুত্ব অনুধাবন করা যায়। খাদ্য ছাড়া আমরা বাঁচতে পারি না। আমাদের প্রধান খাদ্য ভাত। দিনে সাধারণত আমরা নিয়মিত তিনবার খাবার গ্রহণ করি। সকাল, দুপুর ও রাতের খাবারকে ইংরেজিতে যথাক্রমে ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ ও ডিনার বলা হয়। এখন রাত। ডিনার করার সময়। মা কয়েকবার ডেকেছেন। ইনস্টায় রাতের খাবারের ছবিটা আপলোড করেই খেতে বসব। এ থেকে বোঝা যায়, এখনো রাতের খাবার খাইনি।

একটু থামুন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন