default-image
বিজ্ঞাপন

বয়স তাঁর ৪৫। কিন্তু আজও অষ্টাদশীর তারুণ্য শিল্পা শেঠির শরীরে, মননে। বয়স তাঁর কাছে নিছকই এক সংখ্যা। শিল্পার সৌন্দর্য, সোনালি চুল, মেদহীন ঝরঝরে শরীরে লুকিয়ে আছে একরাশ রহস্য। আর সেই রহস্য এই বলিউড নায়িকা নিজেই ফাঁস করেছেন। তার সৌন্দর্যের গোপন কথা এবার জেনে নেওয়া যাক।

উজ্জ্বল ত্বক

default-image

শুধু ফিটনেসের ক্ষেত্রে নয়, উজ্জ্বল ত্বকের জন্য যোগাসনকেই প্রাধান্য দেন শিল্পা শেঠি। তিনি মনে করেন, যোগব্যায়ামের মাধ্যমে ত্বক উজ্জ্বল রাখা যায়। যোগাসনের পাশাপাশি রোজ ১০ মিনিটের মতো মেডিটেশন করেন। এর ফলে যেকোনো ধরনের ত্বকের সমস্যা আর মানসিক চাপ থেকে দূরে থাকেন তিনি।

সবার প্রথম

default-image

সকালে ঘুম থেকে উঠে সবার আগে শিল্পা ভালো করে মুখ ধুয়ে নেন। এরপর তিনি তাঁর দিন শুরু করেন। তবে শীত হোক বা গ্রীষ্ম, শিল্পা সারা বছর মুখ ধোয়ার জন্য হালকা গরম পানি ব্যবহার করেন। এরপর মুখে ময়েশ্চারাইজার লাগান।

বেবি অয়েল

default-image

রাতে শুতে যাওয়ার আগে মেকআপ তুলতে ভোলেন না শিল্পা। তবে মেকআপ তোলার জন্য বাজারের রাসায়নিক সামগ্রী থেকে তিনি দূরে থাকেন। এই বলিউড নায়িকা মেকআপ মোছার জন্য বেবি অয়েল অথবা নারকেল তেল ব্যবহার করেন। এতে ত্বক মোলায়েম থাকে।

বিজ্ঞাপন

ঘরোয়া মাস্ক

default-image

ঘরে তৈরি ফেস প্যাক ছাড়া শিল্পা অন্য কিছু মুখে লাগান না। তিনি নানান ধরনের ফেস প্যাক বাড়িতে বানান। তবে এই বলিউড তারকা সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করেন নারকেল তেল আর চন্দন গুঁড়ামিশ্রিত প্যাক। এ ছাড়া গোলাপজলের সঙ্গে দুধের সর মিশিয়ে প্যাক বানান তিনি। এই প্যাকটা শিল্পা সপ্তাহে একবার ব্যবহার করেন। এতে ত্বক শুধু ঝকঝক করে না, ব্রণ-জাতীয় নানান সমস্যা থেকে দূরে থাকা যায়। তাঁর মতে, সাবান ত্বকের ক্ষতি করে। তাই শরীরে সাবান ব্যবহার করেন না শিল্পা।

চুলের যত্নআত্তি

default-image

শিল্পা তার এক পিঠ চিকন চুলের রহস্য থেকে পর্দা উঠিয়েছেন। চুলকে তিনি বিশেষ গুরুত্ব দেন। তাই বেশি করে চুলের যত্ন নেন শিল্পা। এই বলিউড তারকা প্রাকৃতিক তেল দিয়ে নিয়মিত চুলের ম্যাসাজ করেন। এ ছাড়া প্রায়ই হেয়ার স্পা করেন তিনি।

ব্যালেন্স ডায়েট

default-image

কড়া ডায়েটে মোটেও বিশ্বাসী নন শিল্পা। তিনি ব্যালেন্স এবং হেলদি ডায়েটে বিশ্বাস রাখেন। তাঁর মতে, এতে শরীর এবং ত্বক দুটোই ভালো থাকে। ঝরঝরে শরীর আর উজ্জ্বল ত্বকে জন্য ব্যালেন্স ডায়েট খুব জরুরি। সারা দিনে এক গ্লাস হালকা গরম পানি অবশ্যই খান শিল্পা। তাঁর কথায়, এর ফলে শরীর এবং ত্বকের বিষাক্ত টক্সিন বাইরে বের হয়ে আসে। সারা দিনে ৮ থেকে ৯ গ্লাস পানি খান তিনি। এ ছাড়া এক গ্লাস আমলকীর জুস, গ্রিন টি, কোনো সবজির জুস, আর ডাবের পানি খান শিল্পা। শুধু তা-ই নয়, শরীরচর্চার পর তিনি অ্যলোভেরার জুস খেতে পছন্দ করেন।

বিজ্ঞাপন
রূপচর্চা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন