বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যত্নআত্তি

বাইরে বের হওয়ার আগে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। প্রতিদিন অন্তত আট গ্লাস পানি খান। হারবাল চা পান করার অভ্যাস করুন। খাদ্যতালিকায় রাখুন প্রচুর শাকসবজি ও তাজা ফলমূল। এড়িয়ে চলুন জাঙ্ক ফুড। নিয়মিত শরীরচর্চা করুন। সারা দিনের ব্যস্ততার পর রাতে এবং ছুটির দিনগুলোতে একটু সময় বের করে ত্বকের যত্ন নিন। দেখবেন, চেহারায় তারুণ্য ফুটে উঠেছে।

default-image

ঘরোয়া প্যাক

গ্রিন টি মাস্ক, ১টি ডিম (ফেটিয়ে নেওয়া), বুনোফুলের মধু ১ চা-চামচ, লেবুর রস ১ চা-চামচ, গ্রিন টি পাউডার ১ চা-চামচ, পাকা কলা। সবগুলো উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট করে মুখে লাগাতে হবে। তারপর ১৫-২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে।

default-image

ডিমের সাদা অংশে যে ভিটামিন বি এবং ভিটামিন ই আছে তা আপনার ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে সাহায্য করবে। লেবুর রসের অ্যাসিডিটি আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে এবং বলিরেখা কমিয়ে তুলতে সাহায্য করবে। পাকা কলাও ত্বকের বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে।

রাতে ঘুমানোর আগে ত্বকের যত্ন

default-image

ঘুমানোর আগে অবশ্যই মেকআপ তুলে নিতে ভুলবেন না। আর ক্লেনজার দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে নিন। প্রতিদিন বাইরে থেকে ফিরে ভালোভাবে ক্লেনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করতে হবে। পরে ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। এরপর ভালোভাবে মুখে কয়েকবার ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এরপর টোনার ব্যবহার করুন। টোনার আপনার মুখে ময়লা এবং তেল গোড়া থেকে তুলে দিতে সাহায্য করবে। বিশেষ করে কপাল এবং নাকের আশপাশের জায়গাগুলোকে বাদ দেবেন না। কারণ ওই সব জায়গায় তেল এবং ময়লা বেশি জমে থাকে। ত্বক শুষ্ক হলে টোনার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। মুখে-গলায় অ্যান্টি-রিংকল ক্রিম ব্যবহার করতে হবে।

চোখে সবার আগে ভাঁজ বা বলিরেখা পড়ে। তাই প্রতিদিন রাতে আই জেল বা ক্রিম ব্যবহার করতে ভুলবেন না। বাজারে নানা ব্র্যান্ডের অ্যান্টি-রিংকল আই ক্রিম রয়েছে। প্রতিদিন রাতে আঙুলে নিয়ে আলতো করে চোখের চারপাশে মালিশ করতে হবে।

ত্বকের পুষ্টি

default-image

রাহিমা সুলতানা জানালেন, আমাদের শরীরে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট কমে যাওয়ার ফলে চেহারায় দ্রুত বয়সের ছাপ পড়তে শুরু করে। তবে যদি যথেষ্ট পরিমাণ অ্যান্টি-অক্সিডেন্টযুক্ত খাবার খাওয়া হয় তাহলে বলিরেখা বা বয়সের ছাপ থেকে অনেকখানি রক্ষা পাওয়া যাবে।

প্রতিদিন ১ গ্লাস ফলের রস নিয়মিত

পান করলে বয়সের ছাপ আপনার থেকে দূরে থাকবে।

•সবুজ আপেল, লাল আঙুর বিচিসহ, পেয়ারা কলা আমলকী ইত্যাদি ফলের মধ্যে প্রতিদিন ১টি করে ফল খাওয়া উচিত।

•সবুজ শাকসবজি যেমন: ব্রকলি, ঢ্যাঁড়স, পুঁইশাক, লালশাক, গাজর, টমেটো ইত্যাদি।

•যাঁরা ওজন কমানোর ডায়েট করেন তাঁরা কার্বোহাইড্রেট অংশটা কমিয়ে প্রোটিনের পরিমাণ ঠিক রাখুন। তাহলে ত্বক ও চুলের ক্ষতি হবে না।

•মাছের তেলে নানা রকম ভিটামিন ও পুষ্টিকর উপাদান থাকে, যা আপনার ত্বককে তরুণ করে তুলতে সাহায্য করে।

রূপচর্চা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন