প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবিপ্রথম আলো

চুলের যত্নে আলাদাভাবে বাড়তি সময় বের করা যাঁদের পক্ষে সম্ভব হয়ে ওঠে না, তাঁদের জন্য মূলত এই পরামর্শ। ঘরে আছে এমন কিছু উপকরণে তৈরি প্যাক ব্যবহারে খুব অল্প সময়ে চুলকে সতেজ করে তোলা সম্ভব। এ জন্য প্রথমেই চুলের ধরন জেনে নেওয়াটা খুব জরুরি।

default-image

সে অনুযায়ী কোন উপকরণের সঙ্গে কোন উপকরণ মেলালে তৈরি হবে সঠিক প্যাক, তা জেনে নিতে পারলেই খুব সহজেই ঘরে বসে আপনিও নিতে পারবেন চুলের যত্ন। ধরন অনুযায়ী চার রকম চুলের যত্ন সম্পর্কে পরামর্শ দিয়েছেন চার রূপবিশেষজ্ঞ।

বিজ্ঞাপন

শুষ্ক চুল

হার্বস আয়ুর্বেদিক ক্লিনিকের রূপবিশেষজ্ঞ শাহীনা আফরিন মৌসুমী মনে করেন, চুলের শুষ্কভাব কমাতে কন্ডিশনার ব্যবহারের বিকল্প নেই। কন্ডিশনার হিসেবে চায়ের পাতা বেশ কাজে দেয়।

default-image

চুলের ঘনত্ব বুঝে পরিমাণমতো চা-পাতা পানিতে জ্বাল দিতে হবে। এরপর পানি ছেঁকে নিয়ে চা-পাতায় আবারও পানি মিশিয়ে জ্বাল দিয়ে এই পানির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে নিলেই তৈরি হবে কন্ডিশনার। প্রতিবার শ্যাম্পু করার পর এই কন্ডিশনার ব্যবহার করলে চুলের রুক্ষতা দূর হবে। চুল হবে প্রাণবন্ত।

তৈলাক্ত চুলের যত্নে

তৈলাক্ত ত্বকের তেলচিটচিটে ভাব কমাতে লেবুর খোসার প্যাক ভালো উপকার দেয় বলে জানিয়েছেন হারমোনি স্পার রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা রীতা। যেকোনো কাজে ব্যবহারের পর খোসা ফেলে না দিয়ে তা দিয়েই প্যাক তৈরি করা যেতে পারে। এ জন্য চুলের ঘনত্ব বুঝে লেবুর খোসা নিয়ে তার সঙ্গে ৩ কোয়া রসুন ভালোমতো বেটে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে প্যাক। এই প্যাক শুধু মাথার ত্বকে লাগিয়ে ১ ঘণ্টা অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে। তাহলে চুলের তৈলাক্ত ভাব কমে আসবে।

বিজ্ঞাপন

মিশ্র চুলের জন্য

default-image

এই ধরনের চুল সতেজ রাখতে নিয়মিত তেল ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন মিউনিস ব্রাইডালের রূপবিশেষজ্ঞ তানজিমা শারমীন। নারকেল তেল, ক্যাস্টর অয়েল, তিল তেল বা অলিভ অয়েলের মতো যেকোনো তেল ব্যবহার করা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে তেল হালকা গরম করে মাথায় আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করতে হবে। এরপর অন্তত ঘণ্টাখানেক পর শ্যাম্পু করে ফেলতে হবে।

স্বাভাবিক চুলের যত্নে

যাঁদের চুলের ধরন স্বাভাবিক, তাঁদের খুব বেশি একটা চুলের যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন হয় না বলে মনে করেন বিন্দিয়া এক্সক্লুসিভের রূপবিশেষজ্ঞ শারমীন কচি।এই ধরনের চুল প্রাকৃতিকভাবেই সুন্দর থাকে। তারপরও চুল ঝলমলে দেখাতে পরিমাণমতো টক দইয়ের সঙ্গে (চুলের ঘনত্ব বুঝে) পাতলা করে কাটা পাকা কলা, এক চামচ মধু, দুই টেবিল চামচ আমলা পাউডার, পরিমাণমতো শিকাকাই ও মেথি পাউডার মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করা যেতে পারে। স্বাভাবিক চুলে ১৫ দিনে একবার এই প্যাকের ব্যবহারই যথেষ্ট।

মন্তব্য পড়ুন 0