নিশাত সুলতানা আনন্দ আর সুখবতীকে নিয়ে ‘রাঁধুনি রাজপুত্র’ গল্পটি লিখেছেন। এ ধরনের আরও গল্প নিয়ে বই প্রকাশ করবে গুফি বুকস। লাইট অব হোপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান গুফি বুকস শিশুদের জন্য বিষয়ভিত্তিক বই নিয়ে কাজ করে, যা শিশুদের নৈতিকতা, মূল্যবোধ, সৃজনশীলতা শেখানোর পাশাপাশি শিশুদের বাস্তবজীবনের সমস্যা মোকাবিলায় দক্ষতা তৈরিতে কাজ করে।

নিশাত সুলতানা বলেন, শিশুরা যদি বুঝে যায় যে জেন্ডার বা এ ধরনের বিষয়গুলো তাদের শেখানো হচ্ছে, তখন তারা তা শিখতে বা মানতে চাইবে না। তাই গল্পের ছলে বা বিভিন্নভাবে তাদের সামনে বিষয়গুলোকে হাজির করতে হবে।

উত্তরবঙ্গের নওগাঁর মেয়ে নিশাত সুলতানা এবারই প্রথম শিশুদের মনোজগৎকে ধাক্কা দেওয়ার জন্য লিখছেন, এমন কিন্তু নয়। বিভিন্ন সময়ে তাঁর লেখনীর মূল বিষয়ই হচ্ছে জেন্ডার। ‘প্রথম আলো’সহ বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে নিয়মিত কলাম লেখেন। এ পর্যন্ত তাঁর মোট ১২টি শিশুতোষ বই প্রকাশিত হয়েছে। ‘নিপুর রঙিন একদিন’ ও ‘সবার বন্ধু পিকু’ বই দুটির জন্য তিনি ২০১৮ ও ২০১৯ সালে পরপর দুই বছর জাতিসংঘ শিশু তহবিল-ইউনিসেফ মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। নিশাত বর্তমানে বেসরকারি সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের উপপরিচালক হিসেবে কর্মরত।

জীবনযাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন