খোঁপার একটি অন্যতম অনুষঙ্গ হলো ফুল। আর বসন্তে চুলের ভাঁজে ফুল গুঁজে নেওয়া, সে তো চিরচেনা। নতুনভাবে চুলের ফ্যাশনের অংশ খোঁপায় গাজরা বেঁধে নেওয়া। খুব ঢিলেঢালা বাঁধন নয়, একটু আঁটসাঁট স্টাইলেই খোঁপা বেঁধে নিতে পারেন।

মাঝে পুরোপুরি সিঁথি কেটে বা আলতো সিঁথি—দুইভাবেই আঁটসাঁট খোঁপা বাঁধা যায়। তবে চুল একেবারেই মিশিয়ে রাখতে হবে। সে ক্ষেত্রে চুলের জেল বা স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। কিছুই না থাকলে পানি দিয়েও সেট করে নিতে পারেন। আবার চাইলে কানের দুই পাশে চিকন বেণিও করে নিতে পারেন।

default-image

এমন খোঁপার সঙ্গে অনেক বেশি গাজরার কলি নয়, বরং একটি মালাই ভালো দেখাবে। যাতে খোঁপাটা চোখের আড়াল হয়ে না যায়। চাইলে গাজরার সঙ্গে কিছু গোলাপি আভার গোলাপ মিশিয়ে নিতে পারেন।

যেকোনো রঙের পোশাকের সঙ্গে মানানসই সাদা রঙের গাজরা। গাঢ় নীল, বেগুনি, সবুজ, পেস্ট, লালের সঙ্গে সঙ্গে সাদা, বাদামি, ঘিয়ের মতো রঙেও বাঁধা যাবে গাজরা।

default-image

ফুল সাধারণত শাড়ির সঙ্গেই বেশি ভালো লাগে। তবে সালোয়ার-কামিজ, আনারকলি বা লেহেঙ্গার সঙ্গেও মন্দ লাগবে না সাদা গাজরার ছোট কলি। খোঁপা করলে কানে পরে নিন ঝুমকা বা মুক্তার বড় দুল। এতে আটকা চুলের সৌন্দর্য আরও ফুটে উঠবে।

default-image

একনজরে গাজরার সাজ

* খোঁপাটা আঁটসাঁট করে বাঁধতে হবে।

* গাজরার আকৃতি এমন হবে, যাতে ফুল আর খোঁপা দুটিই দেখা যায়। তাই বেশি ফুল ব্যবহার না করাই ভালো।

* চুল যেন সামনে থেকে বেরিয়ে না থাকে, সে জন্য ভালোভাবে সেট করে নিতে হবে। প্রয়োজনে জেল বা স্প্রে ব্যবহার করা যায়।

* দেশি ঐতিহ্যবাহী লুকেই গাজরা বেশি মানানসই।

* যেকোনো রঙের সঙ্গেই চলে গাজরা।

* বিয়েতেও দিব্যি ট্রেন্ডে আছে গাজরার সাজ।

ফ্যাশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন