default-image

পোশাকটি আলাদা করে মনেই হয় না যে এটি গাউন। মনে হয় শরীরেরই অংশ। রুপালি, চকচকে কাপড়টি জোলির শরীরের সঙ্গে লেপ্টে আছে। অথচ পোশাকটি ধাতব উপাদানে তৈরি। আর এটাই এই পোশাকের বিশেষত্ব। যে শো স্টপার লুকটি দেখতে পাচ্ছেন, তার কৃতিত্বের ভাগ অনেকটা দিতে হবে জোলির ব্যক্তিগত স্টাইলিশ জেসন বল্ডেনকে। তিনিই নিপুণ হাতে জোলিকে এভাবে আলোকিত করে তুলেছেন।
চকচকে রঙের অথচ খুবই আরামদায়ক এ পোশাক তিনি নিয়েছেন ‘বালমেইন রিসোর্ট টোয়েন্টি টু’ সংগ্রহ থেকে। পায়ের যে হিলজোড়া দেখাই যাচ্ছে না, সেগুলো ‘হিডেন ফ্যাশন’ থেকে নেওয়া। পোশাকের সঙ্গে মানানসই রুপার দুল আর আংটিও পরেছেন। সব মিলিয়ে সাদাসিধে এই লুককেই ‘ভোগ’ আখ্যা দিয়েছে, ‘পরম সাড়ম্বর (অ্যাবসলিউটলি গর্জিয়াস)’।

এদিকে জাহারার পরনে ছিল গ্রিক ঐতিহ্যবাহী পোশাক থেকে অনুপ্রাণিত একটি সাদা গাউন। আর শিলোহ পরেছিল কালো ফ্রক। পায়ে অ্যানিমেল প্রিন্ট হাই–টপস। এক হাতে শিলোহ আর আরেক হাতে জাহারার হাত ধরে জোলি হেঁটেছেন লালগালিচায়। নিজের তারকাখ্যাতি সানন্দে বিলিয়েছেন মেয়েদের মধ্যে।

এর আগেও রোম চলচ্চিত্র উৎসবে দেখা দিয়েছেন জোলি। সেদিন তিনি পরেছিলেন রালফ লরেনের কালো ক্ল্যাসিক গাউন।

ফ্যাশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন