মডেল: দীপিকা, ব্যাগ: সেইলর
মডেল: দীপিকা, ব্যাগ: সেইলরছবি: প্রথম আলো

হালফ্যাশনে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ছোট ক্লাচ ব্যাগ। এই ব্যাগগুলো শাড়ির সঙ্গে যেমন মানিয়ে যায়, তেমনি ভালো দেখায় পশ্চিমা পোশাকেও। এ ছাড়াও অফিস শেষে হয়তো ছুটতে হবে কোনো পার্টিতে, সে ক্ষেত্রেও বেছে নিতে পারেন নানা আকারের এই ক্লাচ ব্যাগগুলো। এই ধরনের ব্যাগের সুবিধা হলো এর লম্বা বেল্টটা কাঁধে ঝুলিয়ে নিয়ে যেমন অফিসে দৌড়ানো যায়, তেমনি অফিস শেষে বেল্টটা ভেতরে ঢুকিয়ে দিলেই পার্সের মতো ব্যবহার করা যায়। তাই ফ্যাশন বিশেষজ্ঞরা বললেন, পোশাকটা যেমনই হোক না কেন, হাতে থাকা এই ছোট্ট ব্যাগ নজর কাড়তে বাধ্য। পোশাকের সঙ্গে কনট্রাস্ট রঙের ক্লাচ ব্যাগ এখন ট্রেন্ডি। শুধু রঙের বাহারই নয়, নানা রকম প্রিন্ট বা নকশারও যেন কমতি নেই এসব ক্লাচে।

বিজ্ঞাপন

শপিং মলগুলো ঘুরে দেখা গেল, ধরনটা যেমনই হোক না কেন, ব্যাগের নকশায় বা আকারে থাকছে নানা বৈচিত্র্য। কোনো ব্যাগ চৌকোণাকার, কোনোটি ত্রিভুজাকার বা গোলাকৃতি। কখনো ছোট ক্লাচ ব্যাগগুলোতে পাথর, পুঁতি আর চুমকির ব্যবহারে আনা হচ্ছে আভিজাত্যের ছোঁয়া। পুরো ব্যাগে না হলেও কোনো কোনো জায়গায় অ্যানিমেল প্রিন্টের ব্যবহারও চোখে পড়ছে। খ্যাতনামা আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড, যেমন কোচ, মাইকেল করস, শ্যানেলের রেপ্লিকা ব্যাগগুলোও বেশ জনপ্রিয় এখন।

default-image

এদিকে মাঝারি ও ছোট আকৃতির ক্লাচ ব্যাগগুলোই এখনকার ট্রেন্ড, এমনটাই জানালেন বাটার ডাইভার্সিটি ইনচার্জ সুহানা সাদ্দাত। এই ধরনের ব্যাগের আকার ও নকশার বৈচিত্র্যের কারণে শুধু কাজের জায়গায় নয়, বিভিন্ন উৎসব–আমন্ত্রণে এমন ব্যাগ বেছে নিচ্ছেন অনেকেই। এসব ব্যাগে থাকছে সরু চেনের ব্যবহার। চাইলে কাঁধে ঝুলিয়েও এসব ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। জুতার রঙের সঙ্গে কালার ব্লক করানো ব্যাগগুলোও এখন বেশ জনপ্রিয় বলে জানালেন তিনি।

দোকানের পাশাপাশি বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসেও রয়েছে এই ধরনের ব্যাগের আয়োজন। নানা নকশার বৈচিত্র্য থাকছে আরবান ট্রুথের ব্যাগগুলোয়। সাদা রঙের চামড়ার ব্যাগে সোনালি লেস দিয়ে আঁকা হয়েছে হাসিমুখ। একরঙা ব্যাগে কনট্রাস্ট বেল্টের ব্যবহারও আছে। এদিকে সেইলরের ক্লাচ ব্যাগগুলোর আকারে আনা হয়েছে ছোট ব্রিফকেসের আদল। নিমন্ত্রণে বা বন্ধুদের সঙ্গে ঘোরাঘুরি, উপলক্ষটা যা-ই হোক না কেন, ট্রেন্ডি এই ক্লাচ ব্যাগগুলো মানিয়ে যাবে সব পরিবেশে।

বিজ্ঞাপন

দরদাম

default-image

আরবান ট্রুথে স্ট্রাকচার ব্যাগের দাম পড়বে ১ হাজার ৪০০ টাকা, এনভেলপ ক্লাচ ব্যাগগুলো পাবেন ১ হাজার ৩৯০ টাকায়। ১ হাজার ২০০ থেকে ২ হাজার টাকার মধ্যেই মিলবে অন্যান্য নকশার ব্যাগ। এদিকে ব্যাগ পাবেন ১ হাজার ৫৯০ থেকে ২ হাজার টাকায়। এ ছাড়া নিউমার্কেট, বসুন্ধরা শপিং মল, যমুনা ফিউচার পার্ক, পিংক সিটি শপিং মল ইত্যাদি জায়গা থেকেও কিনতে পারেন ব্যাগ। অনলাইনেও একটু খুঁজে ফরমাশ দিতে পারেন ব্যাগের। শুধু ব্যাগ পাওয়া যাচ্ছে, এমন ফেসবুক পেজও আছে বেশ কিছু।

মন্তব্য পড়ুন 0