ক্রিস বলেন, ‘আমি আসলে জানি না, বিশ্বের সবচেয়ে আবেদনময় পুরুষ হওয়ার পর কভার স্টোরির সাক্ষাৎকারে ঠিক কী কী বলতে হয়। তবে এটুকু বলতে পারি, আমি জীবনে যা যা করেছি, তাতে আমার মা খুবই খুশি। তবে সে সম্ভবত সবচেয়ে খুশি হয়েছে এই অর্জনে। যদিও আমি জানি না, এটা কীভাবে অর্জিত হলো। আমি মাকে জানালাম। মা বলল, “আমি জানতাম।” মায়েরা বোধ হয় এমনই হয়। তবে মা খুশি হলেও বন্ধুরা খেপাবে।’

গত এক দশকে ধারাবাহিকভাবে হলিউডের সুপারহিরো সিনেমায় জ্বলে ওঠা নায়কের নাম ক্রিস ইভানস। মাল্টিবিলিয়ন ডলার অ্যাভেঞ্জার্স ফ্র্যাঞ্চাইজি ভর করেছে তাঁর কাঁধে। সেই সঙ্গে সমানতালে চলেছে ক্যাপ্টেন আমেরিকা ফ্র্যাঞ্চাইজির একের পর এক সিনেমা। পেশাজীবনের সেরা সময়ে দাঁড়িয়ে এখন ক্রিসের হাতে রয়েছে তিনটি সিনেমা।

২০২১ সালে এই বিশ্বের সবচেয়ে আবেদনময় পুরুষ হয়েছিলেন ৫৩ বছর বয়সী মার্কিন অভিনেতা পল রুড। এর আগে জন লেজেন্ড, ইদ্রিস এলবা, ক্রিস হেমসওয়ার্থ, ডোয়াইন জনসন, ব্র্যাডলি কুপারের মতো তারকারা এই খেতাব অর্জন করেছেন।