৪. শিশুরা অনুকরণপ্রিয়। অনেক বাচ্চা একদমই কমোডে বা পটে বসতে চায় না, তাদের জন্য নতুন কিছু কৌশল অবলম্বন করা যেতে পারে। মা–বাবা নিজে টয়লেটে বসে দেখাতে পারেন বা পটে পছন্দের পুতুলটি বসিয়ে দেখাতে পারেন। এতে করে সে দেখে শিখবে, তার আগ্রহ তৈরি হবে।

৫. পরিচ্ছন্নতাও শেখাবেন। একদম ছোট শিশুকে আপনাকেই পরিষ্কার করে দিতে হবে কিন্তু ক্রমান্বয়ে পরিষ্কার করাটা তার নিজেকেই শিখতে হবে। পরিষ্কার করানোর সময় প্রতিটি ধাপ তাকে মুখে বুঝিয়ে বলুন। বাচ্চার হাত–পায়ে কোনো নোংরা লাগলে হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলুন।

৭. পট হাতের নাগালে রাখুন। টয়লেট পট এমন জায়গায় রাখতে হবে, যাতে সে সহজেই নাগাল পায়। বেগ পেলে বাচ্চা যেন ইঙ্গিত করে আপনাকে দেখাতে পারে বা নিজেই দ্রুত গিয়ে বসতে পারে।

মনে রাখবেন, অনেক শিশুর হাঁটা শুরু করতে, বসতে বা নিজে নিজে পটি করাতে অভ্যস্ত হতে কিছুটা সময় লাগে। তারপরও যদি আচরণে অস্বাভাবিক কিছু খেয়াল করেন, দেরি না করে শিশু চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন।

লেখক: চিকিৎসক, শিশুরোগ বিভাগ, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতাল, মগবাজার, ঢাকা।

জীবনযাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন