আমার বয়স ৪১ বছর। উচ্চতা ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি, ওজন ৮০ কেজি। হাত-পা ঝিমঝিম করে। আমার মুখগহ্বর ও জিবে ঘা। পানি পান করতেও কষ্ট হয়। মনে হয়, গলা থেকে ভেতরে ঘা। হাত-পায়ের তালু জ্বালাপোড়া করে। তলপেটের দুই পাশে ব্যথা হয়। মেসে কয়েকজনের সঙ্গে থাকি, তেল ও চর্বিজাতীয় খাবার খেতে হয়। আমি জীবিকার তাগিদে বিদেশে আছি, চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার সুযোগ নেই। এখন কী করব?—নাম ও ঠিকানা প্রকাশে অনিচ্ছুক

উচ্চতা অনুযায়ী আপনার ওজন বেশি। বোঝাই যাচ্ছে যে আপনার খাদ্যাভ্যাস ভালো নয়। রক্তে চর্বি বেশি কিন্তু শর্করা বেশি কি না, তা–ও পরীক্ষা করে নিন। কারণ, ডায়াবেটিসের রোগীদেরই মুখ তালুতে ঘা, হাত-পা জ্বালাপোড়া হয়ে থাকে বেশি। সাধারণত ছত্রাক সংক্রমণের জন্য মুখ ও গলায় ঘা হয়। সে ক্ষেত্রে ছত্রাকরোধী মলম ব্যবহার করা যায় দুই সপ্তাহ। প্রস্রাবে সংক্রমণ হলে তলপেটে ব্যথা হতে পারে, আর এটিও ডায়াবেটিসের রোগীদেরই বেশি হয়। যদি শর্করা বেশি থাকে আর সংক্রমণ ধরা পড়ে, তবে চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ সেবন করতে হবে, যা পরীক্ষা না করে দূর থেকে বলার উপায় নেই।

পরামর্শ দিয়েছেন—ডা. আ ফ ম হেলালউদ্দিন, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ, ঢাকা।

অ্যালার্জি

আমার বয়স ৩৩ বছর। আমি আইজিই (ইমিউনোগ্লোবিউলিন ই) পরীক্ষা করিয়েছি। রেজাল্ট এসেছে ৭৪০ দশমিক ৫০ আইইউ/মিলিলিটার। আমার অ্যালার্জি আছে কি না, জানাবেন। যদি অ্যালার্জি থাকে, তবে কী খাবার খাওয়া যাবে না আর কী নিয়ম মেনে চলতে হবে।—দুলাল চন্দ্র রায়, ধানমন্ডি, ঢাকা।

আপনার অ্যালার্জির সমস্যা আছে তা বোঝা যাচ্ছে। তবে কিসে কিসে অ্যালার্জি আছে, তা আপনার রোগের ইতিহাস শুনে আর অ্যালার্জি প্রোফাইল পরীক্ষা করলে বোঝা সহজ হবে। যে বস্তুতে অ্যালার্জি হয়, তার সংস্পর্শে এলে আপনার ত্বকে র‌্যাশ বা ফুসকুড়ি, হাঁচি-কাশি, চুলকানি ইত্যাদি হতে পারে। তাই আপনি একটি তালিকা করে রাখুন—কবে, কখন আপনার এমন হয়েছে আর সেদিন কিসের সংস্পর্শে এসেছেন। অ্যালার্জি হয়, এমন উপাদান এড়িয়ে চলবেন আর সমস্যা হলে অ্যান্টিহিস্টামিন সেবন করতে পারবেন।

পরামর্শ দিয়েছেন—অধ্যাপক ডা. মো. আসিফুজ্জামান, বিভাগীয় প্রধান, চর্ম বিভাগ, গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ, ঢাকা।

শ্বাসতন্ত্র

আমার বয়স ২৮ বছর। দেড় বছর আগে রাতে হঠাৎ ঘুম থেকে লাফ দিয়ে উঠি। ওঠার পর স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিতে পারছিলাম না। ৫ থেকে ১০ সেকেন্ডের মধ্যে স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নেওয়া শুরু করি। গুগল করে দেখলাম, এটি স্লিপ অ্যাপনিয়া রোগ। নাক ডাকার সমস্যা নেই। করণীয় কী?—নাম ও ঠিকানা প্রকাশে অনিচ্ছুক

খুব সম্ভবত আপনি অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়াতে ভুগছেন। এটি এমন একটি অসুখ, যাতে ব্যক্তির ঘুমানোর সময় শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যাঘাত ঘটে, বেড়ে যায় হৃদ্‌রোগ ও অন্যান্য জটিলতার ঝুঁকি। নাক থেকে শ্বাসনালির মধ্যকার শ্বাসপথের উপরিভাগের কোনো একটি অংশ অবরুদ্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে এটি হয়। রোগ নিশ্চিতভাবে নির্ণয় করার জন্য পলিসমনোগ্রাফি বা স্লিপ টেস্ট করানোর প্রয়োজন পড়ে। আপনার সমস্যার জন্য একজন নাক, কান, গলা রোগ বিশেষজ্ঞ বা পালমোনলজিস্টের পরামর্শ নিন। ওজন বেশি হয়ে থাকলে কমান।

পরামর্শ দিয়েছেন—অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান, মেডিসিন ও বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ।

মনোরোগ

আমার বাবা আলো দেখলে রেগে যান। রাতে খাওয়ার সময়ও জোর করে বাতি জ্বালাতে হয়। আলোতে তাঁর পিঠ জ্বালা ক‌রে, গরম লা‌গে। অন্ধকারে চলাফেরায় হোঁচট খেয়ে পায়ের আঙুল ফেটে যায়, প‌ড়ে যান, তবু আলো জ্বা‌লান না। এমনটা কেন ক‌রেন তিনি? বাবার বয়স ৬১ বছর।—রায়হানুল ফের‌দৌস, রাজার বাগান, সাতক্ষীরা সদর

অনেক কারণে ৬১ বছর বয়সে এ ধরনের লক্ষণ দেখা দিতে পারে। বিষণ্নতা ও আর্লি অনসেট ডিমেনশিয়া, মাইগ্রেন, মস্তিষ্কের নানা সমস্যা এবং কিছু ওষুধ থেকে এ ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। একে ফটোফোবিয়া বলা হয়। আপনার বাবার ক্ষেত্রে ডিমেনশিয়া বা বিষণ্নতা থেকে এমনটা হতে পারে। কত দিন ধরে এ ধরনের সমস্যা হচ্ছে, তা জানা জরুরি। বিস্তারিত ইতিহাস নিয়ে প্রয়োজনে বিষণ্নতা কমানোর ওষুধ দেওয়া যেতে পারে। তবে তাঁর সঙ্গে রাগ করা যাবে না। তাঁকে বুঝিয়ে বলতে হবে।‌ আপাতত উজ্জ্বল আলোতে তাঁর সমস্যা হলে ঘরে মৃদু আলোর বাতি ব্যবহার করতে পারেন। একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞর পরামর্শ নিতে পারেন।

পরামর্শ দিয়েছেন—ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদ, সহযোগী অধ্যাপক, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, ঢাকা।

প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা

স্বাস্থ্য জিজ্ঞাসা

ই-মেইল: [email protected]

ফেসবুক পেজ: fb.com/ProShastho

ডাকযোগে: প্র স্বাস্থ্য, প্রথম আলো, ১৯ কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫