বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কোভিড কিন্তু যায়নি

কোভিডে আক্রান্তের সংখ্যা কমে গেছে মানে অতিমারি সমাপ্ত হয়েছে, তা কিন্তু নয়। শোনা যাচ্ছে, পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে কোভিডের হার আবার বাড়ছে। এটি আমাদের জন্য সতর্কবার্তা। এবার ঈদের বিপুলসংখ্যক মানুষ ভারত ও অন্যান্য দেশে বেড়াতে যাচ্ছেন। তাঁদের উচিত হবে কোভিডের বিধিনিষেধ মেনে চলা। ভ্রমণের সময় ও ভিড়ের মধ্যে মাস্ক পরুন। এটি কোভিডসহ অন্যান্য শ্বাসতন্ত্রের রোগ থেকেও বাঁচাবে। বারবার হাত ধোয়ার অভ্যাস ছাড়বেন না। এতে বাড়তি লাভ হলো ডায়রিয়াসহ খাদ্যবাহিত রোগ থেকেও মুক্তি মেলে। দেশের ভেতরও যাঁরা চলাচল করবেন, ভিড়ের মধ্যে বা মার্কেট–শপিং মলে মাস্ক পরবেন। গণচলাচলের কারণে কোভিডের সংক্রমণ আবার যেন না বাড়ে, সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে।

ওষুধপত্র নিয়ে সতর্কতা

যাঁরা ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদ্‌রোগ, হাঁপানি ইত্যাদি নানা রোগে ভুগছেন, তাঁরা ভ্রমণের আগে এবং ছুটির আগেই নিজেদের ওষুধপত্র যথেষ্ট পরিমাণে সংগ্রহ করে নিন। যেখানে যাচ্ছেন, সেখানে সব ওষুধ না–ও পেতে পারেন; তাই নিজের ওষুধপত্র পর্যাপ্ত পরিমাণে বহন করুন। ইনসুলিন বহন করার জন্য আলাদা বাক্স বা পানি/বরফভর্তি ফ্লাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। ইনহেলার ও অন্যান্য ওষুধ একটি মুখ বন্ধ ব্যাগে নিন। সঙ্গে নিতে পারেন প্রয়োজনীয় কিছু ওষুধ, যেমন প্যারাসিটামল, অ্যান্টিহিস্টামিন, খাওয়ার স্যালাইনের প্যাকেট ইত্যাদি। চাইলে ছোট্ট একটা ফার্স্ট এইড বক্সও সঙ্গে নিতে পারেন।

গরমে ভ্রমণকালীন সতর্কতা

প্রচণ্ড গরম আর রোদের মধ্যেই ঈদভ্রমণ করতে হচ্ছে। তাই গরমে সুস্থ থাকতে প্রচুর পানি পান করবেন। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্কদের যাতে পানিশূন্যতা না হয়, সেদিকে লক্ষ রাখবেন। বারবার তরল গ্রহণ করবেন। হালকা সুতি কাপড় পরবেন। বেশি ঘেমে গেলে শিশুদের পোশাক পরিবর্তন করে দেবেন। রোদে ছাতা, সানগ্লাস ব্যবহার করবেন। ভ্রমণের আগে–পরে হালকা খাবার খাবেন।

বেড়াতে গিয়ে সতর্ক থাকুন

ঈদের ছুটিতে অনেকেই সমুদ্র, পাহাড়, রিসোর্ট ও পর্যটনকেন্দ্রে বেড়াতে যাবেন। অতিরিক্ত উচ্ছ্বাস–আনন্দে সতর্কতার কথা ভুলে যাবেন না। প্রতিবছর এ সময় নানা দুর্ঘটনা ঘটে। শিশুদের দিকে খেয়াল রাখুন। পানি বা আগুনের কাছে যেন না যায়, উৎসবের আনন্দ যেন বেদনায় পর্যবসিত না হয়। বন্ধুবান্ধব ও স্বজনদের সঙ্গে মজা করার সময় খেই হারিয়ে ফেলবেন না।

অন্তঃসত্ত্বা নারীরা ভ্রমণ করার আগে অবশ্যই নিজের চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন। কেউ গ্রামের বাড়ি বা মফস্বলে বা পর্যটনকেন্দ্রে বেড়াতে গিয়ে অসুস্থ বোধ করলে নিকটস্থ কোন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যোগাযোগ করবেন, আগে থেকেই তা জেনে রাখুন।

সুস্থতা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন