• পানিশূন্যতা ও ইলেকট্রোলাইটের ভারসাম্যহীনতা মাথাব্যথা বাড়িয়ে দেয়।

  • স্ট্রেস ও টেনশনের কারণেও হতে পারে মাথাব্যথা।

  • গরমে ঘুম না আসা এ সমস্যা আরও বাড়িয়ে দেয়। মাইগ্রেনের মাথাব্যথার সঙ্গে চোখে ব্যথা, বমি ভাব পরিস্থিতি আরও অসহনীয় করে তোলে।

করণীয়

  • মাইগ্রেনের সমস্যা দূর করার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো কেন এটি হচ্ছে, তা খুঁজে বের করা। এক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করবে মাইগ্রেন ডায়েরি। কবে মাথায় যন্ত্রণা হয়েছে, ওই দিন কী খেয়েছিলেন, কী করেছিলেন, বেশিক্ষণ রোদে থেকেছিলেন কি না— সেগুলো লিখে রাখুন। এ থেকে আপনি বুঝতে পারবেন, নির্দিষ্ট কোনো খাবার বা রোদের কারণে মাথাব্যথা হচ্ছে কি না।

  • গরমের এই সময় ডায়েটে ফল, সবজি, গোটা শস্য ও পর্যাপ্ত প্রোটিন রাখুন।

  • সময়মতো খাবার খেতে হবে। অর্থাৎ খাবারের সময়সূচি ঠিক রাখবেন।

  • যথেষ্ট পানি, লেবু পানি, ডাবের পানি ইত্যাদি পান করবেন।

  • কিছু ওষুধযুক্ত তেল মাথাব্যথা উপশম করে। পিপারমিন্ট তেল ব্যবহার করতে পারেন।

  • এক বালতি ঠান্ডা পানিতে ১০ মিনিট দুই পা ডুবিয়ে রাখুন। এতে উপকার পাবেন।

  • অন্ধকার ঘরে চোখ বন্ধ করে নীরবতা পালন করতে পারেন। এতে ব্যথার তীব্রতা কমতে পারে।

  • স্ট্রেস ও টেনশনের কারণেও হতে পারে মাথাব্যথা। এক্ষেত্রে ম্যাসাজ করলে পেশির টান দূর হবে ও বাড়বে রক্ত সঞ্চালন।

  • ব্যথা বেশি হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

অধ্যাপক ডা. এম এস জহিরুল হক চৌধুরী, ক্লিনিক্যাল নিউরোলজি বিভাগ, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল

সুস্থতা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন