বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গোসলের পর চুলের গোড়া নরম হয়ে যায়, এ সময় জোরে চাপ দিয়ে চুল মুছলে কিংবা আঁচড়ালে চুল পড়া ও ভেঙে যাওয়ার হার অনেকাংশে বেড়ে যায়। অনেকেই চুল শুকাতে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করেন। ড্রায়ারের গরম বাতাস চুলের জন্য ক্ষতিকর। চুলে গরম বাতাস বা কোনো ধরনের তাপ নেওয়া যাবে না, এতে চুল পড়া বেড়ে যাবে।

চুল পড়া বন্ধে বা চুলের যত্নে অবশ্যই নিয়মিত তেল ব্যবহার করতে হবে। এ ক্ষেত্রে নারকেলের তেল ব্যবহার করতে পারেন। চুল মসৃণ ও স্বাস্থ্যবান করে তুলতে নারকেলের তেলের জুড়ি মেলা ভার। নারকেলের তেলের অ্যান্টি–ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য চুলকে ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাকের আক্রমণ থেকে রক্ষা করে।
কেন চুল পড়ছে, এটি জানতে হলে প্রথমেই জানতে হবে আপনি কী খাচ্ছেন।

অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস চুল পড়ার অন্যতম কারণ। ডিম, দুধ, সামুদ্রিক মাছ ও ভিটামিন-ই যুক্ত খাবার চুলের জন্য খুবই উপকারি। চুল পড়া রোধে মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া এবং দুশ্চিন্তামুক্ত থাকা জরুরি। শরীর সুষম খাবার না পেলে ফিডব্যাক কখনোই ভালো দেবে না; বরং তৈরি হতে পারে হরমোনাল ইমব্যালেন্স। তাই চুল সুস্থ রাখতে চাইলে সুস্থ থাকতে হবে ভেতর থেকে।

সুস্থতা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন