ভাপা পিঠা

চুলা থেকে নামানো গরম ভাপা পিঠার স্বাদ অতুলনীয়। কিন্তু ঠান্ডা হয়ে গেলে শক্ত হয়ে যায় এই পিঠা। এই পিঠাকেও আবার নরম করার উপায় আছে। ভাপে বসিয়ে দিন। প্রেশার কুকার, রাইস কুকার অথবা হাঁড়িতে পানি গরম করে ওপরে চালনি দিয়ে দিন। তাতে একটা ভেজা নরম কাপড়ে শক্ত পিঠাটি পেঁচিয়ে তিন থেকে চার মিনিট ভাপ দিতে হবে। একইভাবে মাইক্রোওভেনেও ভাপা পিঠা গরম করা যাবে। তবে মাইক্রোওভেনে দেওয়ার সময় কাপড়টি তুলনামূলক বেশি ভিজিয়ে নিয়ে পিঠায় পেঁচিয়ে দিতে হবে।

চিতই পিঠা

ভাপা পিঠার মতো চিতই পিঠাও একইভাবে ভাপে দিয়ে গরম করতে হবে। তবে অনেকেই চিতই পিঠার নিচের দিকটা একটু শক্ত রাখতে চান। ভাপে দেওয়া শেষ হলে চুলার ওপর গ্রিল বসিয়ে দুই মিনিট এপিঠ–ওপিঠ করে নিলেই ভাপের পানিটা শুকিয়ে যাবে। একেবারে তাজা গরম পিঠা হয়ে যাবে।

অনেক দিন ডিপ ফ্রিজে রেখেও চিতই পিঠা খাওয়া যায়। খাওয়ার এক ঘণ্টা আগে ফ্রিজ থেকে বের করে গরম করতে হবে। বরফ করা চিতই পিঠা দুধে ভেজানো যায়। ফ্রিজ থেকে বের করে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এনে ফুটন্ত গরম দুধে দিয়ে দিন। বলক দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে।

সিদ্ধ পুলি

সিদ্ধ পুলিও ভাপে দিয়ে গরম করা যায়। এই পিঠা গরম করার সময় কাপড়ে না প্যাঁচালেও হবে।

এ ছাড়া তেলের পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা বা অন্যান্য পিঠা ওভেনে গরম করে খাওয়া যায়। তবে গরম করার পরপরই খেয়ে ফেলতে হবে, না হলে একটু পর আবার শক্ত হয়ে যাবে।