পার্সলে রাইসের সঙ্গে এসকোভিচ

default-image

উপকরণ: ৩০০ থেকে ৪০০ গ্রামের ২টি আস্ত ইলিশ, কালো গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, রসুনগুঁড়া আধা চা-চামচ, লাল মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, ভিনেগার ৩ টেবিল চামচ, স্প্রিং অনিয়ন ২/৩টি, জলপাই তেল বা সাদা তেল আধা কাপ, পাতলা করে কাটা গাজর ১টি, পেঁয়াজ ১টি, সেলারি ১টি, লাল ক্যাপসিকাম ১টি, হলুদ ক্যাপসিকাম ১টি, সবুজ ক্যাপসিকাম ১টি, চিনি সামান্য, লবণ পরিমাণমতো, লেবুর রস ২ চা-চামচ।

মাছ সিজলিংয়ের উপকরণ: আস্ত ধনে ১ চা-চামচ, আস্ত জিরা ১ চা-চামচ, শুকনা আদাগুঁড়া ১ চা-চামচ, শুকনা রসুনগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ ১ চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ ও লাল মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ। সবকিছু চুলায় টেলে একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিতে হবে।

প্রণালি: আস্ত মাছ পরিষ্কার করে নিতে হবে। সব গুঁড়ামসলা, লেবুর রস ও লবণ দিয়ে মেখে মাছ আধা ঘণ্টা রেখে দিন। সব সবজি আঙুলের মতো পুরু করে কাটতে হবে। এবার ফ্রাই প্যানে মাছগুলো ভেজে তুলে রাখুন। ওই তেলে কেটে রাখা সবজিগুলো দিয়ে ভালো করে নাড়াচাড়া করে নিন। কিছুক্ষণ পর ভিনেগার, গোলমরিচের গুঁড়া ও ফিশ সিজলিং দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে। একটা প্লেটে ভাজা মাছটির ওপরে সবজি ছড়িয়ে দিন। এবার পার্সলে রাইসের সঙ্গে পরিবেশন করতে হবে।

পার্সলে রাইস

উপকরণ: পোলাওয়ের চাল ২ কাপ, পানি ৪ কাপ, সাদা তেল ১ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো, মাখন ২ টেবিল চামচ, গ্রিন চিলিকুচি ৪/৫টি, পার্সলেকুচি ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজপাতাকুচি সামান্য, রসুনকুচি ১ চা-চামচ।

প্রণালি: পানিতে তেল ও লবণ দিয়ে ভালো করে ফোটাতে হবে। পানি ফুটে উঠলে ধুয়ে রাখা চাল দিয়ে ঢেকে রাখুন। ভাত সেদ্ধ হলে নামিয়ে রাখতে হবে। এরপর আলাদা প্যানে মাখন গরম করে রসুনের কুচি দিন। একে একে পার্সলেকুচি, কাঁচা মরিচকুচি দিয়ে নাড়াচাড়া করে সেদ্ধ করে রাখা ভাতের সঙ্গে মেশাতে হবে। পেঁয়াজপাতাকুচি, লবণ ও সাদা গোলমরিচের গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে রাখুন।

রসনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন