৩. ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভেগান ডায়েট খুবই কার্যকর।
৪. আপনি প্রাণিজ প্রোটিন পরিমাণে যতটুকু খেতে পারতেন, উদ্ভিজ্জ প্রোটিনের ক্ষেত্রে আপনি আরও দুই চামচ বেশি তুলে নিতে পারেন পাতে। কেবল পেট ভরে নয়, চোখ ভরে আর মন ভরেও খেতে পারেন ভেগান খাবারগুলো।

৫. বেশ কিছু গবেষণা বলছে, ভেগান ডায়েট কর্মদক্ষতা বাড়ায়। কেননা প্রাণিজ প্রোটিনে এমন অনেক উপাদান আছে, যেগুলো আপনার ক্লান্তি বাড়ায়। পরিপাকপ্রক্রিয়াতে শরীরের অনেক ক্যালরি খরচ করে ফেলে।
৬. হার্টের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অসুখে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে।
৭. পরিপাকপ্রক্রিয়া সহজ হয়ে যায়। ফলে পেটের সমস্যা, ডায়রিয়া, গ্যাস্ট্রিক—এগুলোর আশঙ্কা কমে। আর প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে টয়লেটের অভিজ্ঞতা হয় আরামদায়ক।