default-image

অফিস থেকে ফেরার সময় ঘনিয়ে এলেই ছোট্ট রিয়ানা কীভাবে যেন টের পেয়ে যায় ; নানুমণিকে দিয়ে মাকে ফোন করে জিজ্ঞেস করে - ‘ মা, কোথায় তুমি’...মায়ের পাশাপাশি আরও কিছুর জন্য কী অপেক্ষা করে রিয়ানা?

রিয়ানা খেয়াল করেছে মা ফেরার সময় কাঁধে ব্যাগের পাশেও হাতে একটা ব্যাগ থাকে। রিয়ানা জানে ভিতরে কিছু না কিছু ‘জিনিস’ আছে।

মা ফেরার সময় বাসার প্রয়োজনীয় টুকটাক জিনিস, হালকা স্ন্যাকস, কখনো সখনো রিয়ানার জন্য স্টিকার, রং করার বই নিয়ে আসেন। প্যাকেটে মোড়ানো এসব জিনিস খুলে বের করলেই রিয়ানার চোখমুখ উজ্জ্বল হয়ে যায়, আনন্দে প্রজাপতির পাখার মতো দুহাত নেড়ে বলতে থাকে ‘সারপ্রাইজ’ ‘সারপ্রাইজ’। মা সারপ্রাইজ এনেছে। ছোট ছোট উপহারের আনন্দে সন্ধ্যার আকাশের সবগুলো তারা জ্বলে বাসাটাকে যেন আলোয় ভরিয়ে দেয়। ছোট ছোট উপহার রিয়ানার মনে আনন্দের স্মৃতি হয়ে জায়গা করে নেয়।

বিজ্ঞাপন

আরেকটি পরিবারের হাসান সাহেব অবসর জীবন যাপন করছেন প্রায় ৩ বছর হলো...এখন সময় কাটান চ্যানেল ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে খবর দেখে। পত্রিকায় কলাম লিখতে ভালোবাসেন, কোনো সংবাদ বা বিষয়বস্তু মনে নাড়া দিলে তিনি সেটি নিয়ে লিখেন। ছেলের বউ টাইপ করে বিভিন্ন পত্রিকায় ই-মেইলে পাঠিয়ে দেন। ফেসবুকেও পোস্ট দেন নিজের পেজে এসব নিয়ে।

তারপর আছে পুরোনো দিনের গানের প্রোগ্রাম। বেশ কয়েকটি চ্যানেলে আয়োজন থাকে এসব গানে। এখন বেশির ভাগই লাইভ প্রোগ্রাম।

তবে নাতি আর নাতনির জন্য এখন বাসার টিভিতে বেশির ভাগ সময় কার্টুন ছাড়া থাকে। তাই আর টিভিতে সব প্রোগ্রাম দেখা সম্ভব হয় না।

সকালে নাশতা সেরে বেরিয়ে যান, বেশ কয়েকটা খবরের কাগজ পড়ে বাসায় ঢোকেন। এমনই একটা দিনে প্রতিদিনকার মতো বাসায় ফেরেন ঠিকই, কিন্তু রুম থেকে খবরের শব্দ শুনে অবাক হয়ে যান, “তার রুমে টিভি সেট করল কে?” ছেলেকে ফোন করতেই জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলল, বাবা আপনার ৭০তম জন্মদিনে এই উপহার টুকু তো দিতেই পারি তাই না? বাবা চোখে আনন্দাশ্রু। ভাগ্যিস ফোনে দেখা যায় না।

উপহার এমনই। কিছু উপহার পূর্ণ করে বাড়িকে। আনন্দ বাড়িয়ে দেয় শতগুণ। এমন আনন্দের আরও কিছু মুহূর্ত ভাগাভাগি করতে

শাহ্ সিমেন্ট নিয়ে এলো “হাউজফুল উৎসব ২০২০”। এ বছর পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে এবং নভেম্বর পর্যন্ত চলবে শাহ্ সিমেন্ট হাউজফুল উৎসব।

নতুন বাড়ি তৈরি হয় সারা জীবনে পুষে রাখা স্বপ্ন পূরণের আনন্দ নিয়ে। বাড়ি করতে কেনা লাগে সিমেন্ট, রড, বালি, পাথর আরও অনেক কিছু। শাহ্ সিমেন্ট হাউজফুল উৎসবে প্রতি ১০০ ব্যাগ সিমেন্ট কেনার পর একটি স্ক্র্যাচ কার্ড দেওয়া হয় এবং প্রতি কার্ডেই আছে স্মার্টফোন, বাইসাইকেল, এয়ারকুলার, মোটরবাইক, গাড়িসহ আরও নিশ্চিত উপহার। উৎসবে অংশ নিতে আপনাকে খোঁজ নিতে হবে নিকটস্থ সিমেন্ট দোকানে। শাহ্ সিমেন্ট হাউজফুল উৎসবে এভাবেই ভরে থাক আপনার ঘর উপহারের আনন্দে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন