বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্বের প্রায় সমস্ত নামী পত্রিকাই এই তিন ছবি নিয়ে প্রকাশ করেছে প্রতিবেদন। দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ সংগত কারণেই কেট মিডলটন পর্যন্ত পৌঁছাতে পারেনি। তারা সাক্ষাৎকার নিয়েছে আলোকচিত্রী পাওলো রভারচির। কেটকে স্থিরচিত্র বানিয়ে ফেলার অভিজ্ঞতা ভাগ করতে গিয়ে পাওলো বলেন, ‘সময়টা কেটেছে খুবই আনন্দে। ডাচেস ইতিবাচক শক্তিতে ভরপুর একজন নারী। নিজের ভেতরের এই ইতিবাচকতাকে সর্বত্র ছড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকে একটা আশাবাদী জায়গায় রূপান্তরিত করার ক্ষমতা রাখেন।’

default-image

যুক্তরাজ্যের কেমব্রিজের নরফোকে নিজেদের আরেকটি আবাসনে তিন সন্তান প্রিন্স জর্জ, প্রিন্সেস শার্লট, প্রিন্স লুইসসহ পরিবারের ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে জন্মদিন উদ্‌যাপন করবেন কেট। এতে আরও অংশ নেবেন ব্রিটিশ সংগীত তারকা লিওনা লুইস ও এলি গোল্ডিং।

default-image

রাজপরিবারের ভেতরে থেকে যাঁরা বিশ্ব ফ্যাশনকে প্রভাবিত করেছেন, তাঁদের ভেতর ডায়নার আশপাশেই কেট মিডলটনের অবস্থান। কিছুদিন আগেও ফ্যাশন মোমেন্ট তৈরি করেছেন কেট। ‘নো টাইম টু ডাই’ সিনেমার লন্ডনের প্রিমিয়ারে তিনি ব্রিটিশ ফ্যাশন ডিজাইনার জেনি প্যাকহামের বানানো সোনালি রঙের চুমকির গাউন পরে হাঁটেন লালগালিচায়। পোশাকটি দারুণ প্রশংসা কুড়ায়।

default-image
স্টাইল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন