রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট

default-image

উইলিয়াম শেকস্‌পিয়ারের এই ট্র্যাডেডির নামটা শুনে অনেকেই ভ্রু কুঁচকে তাকাচ্ছেন নিশ্চয়ই। ভাবছেন বহুল চর্চায় ক্লিশে হয়ে গেছে এই গল্প। কিন্তু এর আবেদন কি সত্যিই নষ্ট হয়েছে? ১৫ শতকের শেষ দশকে লেখা রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েটই এখন পর্যন্ত লেখা সেরা প্রেমের গল্প। এই প্রেমের নাটক আমরা এখনো উপভোগ করি। শেষ দৃশ্যে গিয়ে আমাদের চোখ ভিজে ওঠে। আমরা উপলব্ধি করি সত্যিকারের প্রেম কোনো বাধা মানে না। তার পায়ে শিকল পরানো যায় না। রোমিও আর জুলিয়েটের মৃত্যু আলিঙ্গন আজও আমাদের কাঁদায়।

আনা কারেনিনা

default-image

লিয়েভ তলস্তয় আনা কারেনিনা লিখেছিলেন ১৮৮১-১৮৮২ সালে। প্রথম প্রকাশিত হয় ১৮৭৮ সালে। রাশিয়ায়। ১৪৩ বছর পরে আজও বাংলাদেশে বসে আমরা পড়ছি সেই উপন্যাস। শত ভাষায় অনুবাদ হয়েছে, কোটি কোটি কপি বিক্রি হয়েছে। এই গল্পের প্রাণ হলো আনা কারেনিনার সঙ্গে কাউন্ট ভ্রনস্কির সম্পর্ক। যে সম্পর্কের পরিণতি বিষাদে। আনা ট্রেনের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়ে। শুধু প্রেমের গল্প হিসেবেই নয়, অনেক সমালোচকের দৃষ্টিতেই এই রুশ উপন্যাসটি সর্বকালের সেরা সাহিত্যের মধ্যে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

ওয়াদারিং হাইটস

default-image

ভালোবাসা ও যন্ত্রণার মধ্যে একটা যোগসূত্র আছে—এ রকম কখনো মনে হয়েছে আপনার? এই ব্যাপারটা বোধ হয় সবচেয়ে ভালো বুঝতে পেরেছিলেন ইংরেজ ঔপন্যাসিক এমিলি ব্রনটি। জীবনে তিনি একটা মাত্র উপন্যাস লিখেছেন এবং একটাতেই বাজিমাত করেছেন। হিথক্লিফ ক্যাথিকে ভালোবাসে। ক্যাথিও ভালোবাসে হিথক্লিফকে। বাধা হয়ে দাঁড়ায় শ্রেণিবৈষম্য। পুরো কাহিনিতে হিথক্লিফ এমন এক ভালোবাসার পেছনে ছুটেছে, যা তার পুরো জীবনকে এলোমেলো করে দিয়েছে।

প্রাইড অ্যান্ড প্রেজুডিস

default-image

জেন অস্টিনের এই উপন্যাসটি প্রথমে মিথ্যা অহমিকার কমেডি গল্প মনে হতে পারে আপনার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এটা একটি চিরন্তন প্রেমের গল্প। এ বইয়ের যে গল্প আপনাকে সবচেয়ে বেশি স্পর্শ করবে তা হলো, এলিজাবেথ বেনেথ ও মি. ডারসির গল্প। শুরুতে তাদের সম্পর্কটা তেমন উষ্ণ নয়। একটু একটু করে তারা একজন আরেকজনের কাছে আসে। এরপর উত্থান–পতনের পরম্পরায় এগিয়ে চলে কাহিনি।

দ্য থর্ন বার্ডস

default-image

অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত লেখক কলিন ম্যাককুলাহর বেস্ট সেলিং উপন্যাস। এক নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প। র‌্যালফ নামে এক ধর্মযাজকের সঙ্গে ম্যাগি ক্লেয়ারির প্রেম। বয়সে তাদের ২০ বছরের পার্থক্য। ম্যাগিকে ভালোবাসে র‌্যালফ। কিন্তু তিনি রোমান ক্যাথোলিক ধর্মযাজক। প্রেম, ভালোবাসা তার জন্য নয়। তাদের চুম্বনের মুহূর্তটা সাহিত্যের সেরা প্রেমের মুহূর্তগুলোর মধ্যে অন্যতম। থর্ন বার্ড হলো উপকথার একটা পাখি, যে ভালোবাসার প্রতীক।

গল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন