বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিআইডব্লিউটিএর সর্বশেষ হিসাবে, গত ১১ বছরে নৌদুর্ঘটনায় নৌযান ডুবেছে ৩৮৭টি। উদ্ধার করা হয়নি ১৮১টি। যদিও নৌ সড়ক ও রেলপথ রক্ষাকারী কমিটির মতে, একই সময়ে ১ হাজার ৫০০ নৌযান দুর্ঘটনায় পড়েছে। নৌযান অনুমোদনহীন হওয়ায় অনেক দুর্ঘটনার খবর মালিকপক্ষ কর্তৃপক্ষকে জানায় না। অন্যদিকে সরকারি হিসাবে দেশে মাত্র ১৩ হাজারের বেশি নৌযান চলাচল করে। তার মধ্যে রুট পারমিট থাকা যাত্রীবাহী জাহাজের সংখ্যা ৭৮০টি। তবে ২০০৭ সালের বিশ্বব্যাংক এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, দেশে মোট নৌযান চলাচল করেই ৭ লাখ ৪৫ হাজারটি।

অথচ নৌযান চলাচল ও দুর্ঘটনার এমন পরিসংখ্যানের বিপরীতে উদ্ধারকারী নৌযান মাত্র চারটি, তা–ও সেগুলো নিয়ে আছে নানা অভিযোগ। ফলে উদ্ধার করতে না পেরে পরিত্যক্ত ঘোষণা করতে হয় অনেক নৌযান। এসব পরিত্যক্ত নৌযান নৌরুটের তলদেশে রয়ে যাওয়ায় বিঘ্নিত হয় নৌচলাচল। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমন পরিস্থিতিতে উচিত নতুন আরও উদ্ধারকারী জাহাজ কেনা। অবশ্যই সেটি হওয়া উচিত নৌযানের আকার এবং নৌপথের অবস্থা বিবেচনায় নিয়েই। আশা করি, এ ব্যাপারে দ্রুত কার্যকরী সিদ্ধান্ত ও ব্যবস্থা নেবে কর্তৃপক্ষ।

সম্পাদকীয় থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন