বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘ইন্দো-প্যাসিফিক নিয়ে বাংলাদেশের যে অবস্থান, আগামী দিনগুলোতে সেটিও আমরা পরিষ্কার করব। এটি নিয়ে কাজ করছি।’

ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরকে ঘিরে ভূ–রাজনৈতিক প্রতিযোগিতার প্রেক্ষাপটে অনেক দেশ এ নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে আলোচনা করছে। সম্প্রতি প্যারিস সফরের সময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পর প্রচারিত যৌথ ঘোষণায় ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় কৌশল বা আইপিএসের প্রসঙ্গটি এসেছে।

আইওআরএর মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে আইপিএস নিয়ে আলোচনা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পররাষ্ট্রসচিব বলেন, ‘সম্প্রতি ফ্রান্সের সঙ্গে বৈঠকের পর যে যৌথ বিবৃতি বের হলো, সেখানে একটি পুরো অনুচ্ছেদ রয়েছে ইন্দো-প্যাসিফিক নিয়ে। এটি আরও বেশি বর্ধিত করে আগামীতে আমাদের যে অবস্থান সেটাও আমরা সবার কাছে পরিষ্কার করব।’

পররাষ্ট্রসচিব জানান, আইপিএস নিয়ে কিছু দেশ হয়তো কিছু উদ্যোগ নিয়েছে। তারা ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরকে ঘিরে আলাদা নীতিগত অবস্থান চূড়ান্ত করেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি অবস্থান রয়েছে। আবার ইউরোপের একাধিক দেশের নিজস্ব অবস্থান আছে। যুক্তরাষ্ট্রেরও অবস্থান আছে।

মাসুদ বিন মোমেন বলেন, এ নিয়ে একটি অবস্থান এককভাবে একটি দেশের পক্ষে নেওয়াটা যতটা সহজ, আইওআরএর মতো একটি সংস্থার পক্ষে সবার জন্য প্রযোজ্য একটি অবস্থান তৈরি করাটা কিছুটা কঠিন। কারণ, এ বিষয়ে সবার আগ্রহ রয়েছে এবং এ অঞ্চলের সঙ্গে ইন্দো-প্যাসিফিকের একটি যোগাযোগ রয়েছে। এসব কারণে সবার আশা, আগামীতে এটি নিয়ে আরও আলোচনা হবে।

পররাষ্ট্রসচিব জানান, আগামী বছরের জুলাইয়ে আবার বৈঠক হবে। তখন বিস্তারিত আলোচনা হবে। এই সময়ের মধ্যে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর নিজস্ব চিন্তাভাবনা আরও বেশি পরিষ্কার হবে বলে তিনি জানান।

ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরকে ঘিরে ভূ–রাজনৈতিক প্রতিযোগিতার প্রেক্ষাপটে ভারত মহাসাগরকে ঘিরে আইওআরএর অবস্থান প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আমরা ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরকে অবাধ, মুক্ত, অংশগ্রহণমূলক ও শান্তিপূর্ণ দেখতে চাই। কারও আধিপত্য চাই না। এবার সবাই একই সুরে কথা বলেছেন।’

এবারের আইওআরএর বৈঠকে এ বিষয়ে কী আলোচনা হয়েছে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিট) অ্যাডমিরাল (অব. ) মু. খোরশেদ আলম বলেন, ‘আমরা কর্মকর্তা পর্যায়ে আলোচনা করেছি, কিন্তু কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।’

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন