default-image

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের লুটপাট এবং সিন্ডিকেটের কারণে দ্রব্যমূল্য আকাশছোঁয়া। প্রতিটি পণ্যের দাম দ্বিগুণ-তিনগুণ। এই পরিস্থিতিকে দুঃশাসন আখ্যা দিয়ে এর থেকে মুক্তির জন্য জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি নেতা তরিকুল ইসলামের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তরিকুল ইসলাম স্মৃতি সংসদ এই সভার আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, সরকার বেতন বাড়াচ্ছে সরকারি কর্মকর্তাদের। কৃষক, শ্রমিকদের বেতন বাড়ছে? তাঁদের জীবনধারণ দিন দিন অসম্ভব হয়ে পড়ছে।

বিজ্ঞাপন

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগের মহাসচিব প্রতিদিন কথা বলেন। সুবেশী মানুষ। চমৎকার আসনে, চমৎকার কক্ষে বসে কথা বলেন। শুনেছি তিনি ছাত্রজীবনে নাটক করতেন। তাঁর বক্তব্য একটাই, বিএনপির এই নাই, ওই নাই। বিএনপি সংকটে পড়েছে, নেতৃত্ব নাই। বিএনপির যদি এত না-ই থাকে, তাহলে মুখে সারাক্ষণ বিএনপি কেন? কারণ, তিনি জানেন বিএনপিই একমাত্র দল, যারা গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে পারে, এই দুঃশাসনের অবসান করতে পারে।

দেশের গণতান্ত্রিক চেতনা আওয়ামী লীগ ধ্বংস করে দিয়েছে উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, ’৭২–এও তারা এই কাজ করেছিল। ক্ষমতাকে স্থানীয় করার জন্য বাকশাল করেছিল। একইভাবে তারা এখনো কাজ করে যাচ্ছে। এই দুঃশাসন থেকে মুক্তির জন্য ঐক্য, ঐক্য, ঐক্য এবং জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন।

বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে দিয়েছে। দুর্নীতি, অনাচার, ধর্ষণ, অবিচার স্বদেশকে নিঃশেষ করে দিচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0