ওবায়দুল কাদের বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতরের মহিমান্বিত আহ্বানে শান্তি-সুধায় ভরে উঠুক বিশ্বসমাজ এবং দেশপ্রেম আর মানবতাবোধের বহ্নিশিখায় জেগে উঠুক প্রতিটি মানবহৃদয়। তিনি সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ‘আসুন, সমাজের ধনী-গরিব, ধর্ম-বর্ণ-গোত্র, জাতিগোষ্ঠী সম্প্রদায়নির্বিশেষে সবাই পারস্পরিক সহযোগিতা ও সহমর্মিতার মধ্য দিয়ে ঈদের এই খুশি ভাগাভাগি করে নিই।’

পরম করুণাময় আল্লাহ তাআলার কাছে প্রার্থনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মানুষের জীবন থেকে দূরীভূত হোক সব যুদ্ধবিগ্রহ, মহামারি, দুঃখ-জরা; সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধির ধারায় প্রবাহিত হোক বিশ্বলোক।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে অতীতে বাংলাদেশ যেভাবে সংকট পেরিয়ে আশার সুবর্ণ প্রদীপ জ্বালিয়েছে, একইভাবে করোনা সংকট মোকাবিলা করে আবারও নব উদ্যমে কাঙ্ক্ষিত উন্নয়নের পথে, আলোর পথে এগিয়ে যাচ্ছে।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আবারও ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে অর্থনীতির চাকা।
ওবায়দুল কাদের আশা প্রকাশ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যার সাহসী ও মানবিক নেতৃত্বে সব ষড়যন্ত্র ও সংকটের সাগর পেরিয়ে তীরে পৌঁছাবে বাংলাদেশ ইনশা আল্লাহ।
করোনা সংকটে সবাইকে সাহস ও মনোবল নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে এলেও নির্মূল হয়নি।

দলমত-নির্বিশেষে করোনা সংকট উত্তরণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। তিনি সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের মাধ্যমে ঈদ উদ্‌যাপন করে রাজনৈতিক দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে অভিন্ন শত্রু করোনাকে প্রতিরোধ করার আহ্বান জানান।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন