default-image

জাতীয় সংসদের দুটি আসনের উপনির্বাচনে ভোট চলছে। আসন দুটি হচ্ছে ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬। আজ শনিবার সকাল ৯টায় ভোট শুরু হয়েছে । চলবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুটি আসনেই আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীরা সাংসদ হয়েছিলেন। তাঁদের মৃত্যুতে আসন দুটি শূন্য হয়। দুটি আসনের ভোট হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

ঢাকা-৫ আসনে ভোটার ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। মোট ভোটকেন্দ্র ১৮৭ টি। নওগাঁ-৬ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৬ হাজার ৭২৫ জন। ভোট হবে ১০৪টি কেন্দ্রে।

দুটি আসনেই আজ কেন্দ্রগুলোতে কম ভোটার উপস্থিতি দেখা গেছে।

জাতীয় রাজনীতির প্রধান দলগুলো নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েছে। তবে দুটি আসনেই আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে স্থানীয় ভোটাররা মনে করেন।

২০০৮ সাল থেকে দুটি আসনেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জয়ী হয়ে আসছেন। ঢাকা-৫ আসনে দীর্ঘদিনের সাংসদ ছিলেন হাবিবুর রহমান মোল্লা। আর ইসরাফিল আলম ছিলেন নওগাঁও-৬ (আত্রাই–রানীনগর) আসনের সাংসদ।

সাধারণত সাংসদেরা মারা গেলে পরিবারের কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। এবার দুটি আসনেই আওয়ামী লীগ নতুন প্রার্থী দিয়েছে। ঢাকা-৫ আসনে প্রার্থী যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী মনিরুল ইসলাম। আর রানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে নওগাঁ-৬ আসনে প্রার্থী করা হয়।

বিজ্ঞাপন
default-image

অন্যদিকে বিএনপি ঢাকা-৫ আসনে প্রার্থী করেছে এই আসনের সাবেক সাংসদ সালাহউদ্দিন আহমেদকে। নওগাঁ-৬ আসনে দলটির প্রার্থী নওগাঁ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শেখ মোহাম্মদ রেজাউল ইসলাম।

ইতিমধ্যে উপনির্বাচন ঘিরে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগ এসেছে। তবে নির্বাচন কমিশন বলছে, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য ছাড়াও বিচারিক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা দায়িত্ব পালন করবেন। গতকাল শুক্রবারই প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশি পাহারায় সরঞ্জাম পাঠানো শুরু হয়।

আমাদের নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, নওগাঁ-৬ (রানীনগর ও আত্রাই) আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে শনিবার সকাল ৯টা থেকে। ভোট গ্রহণ শেষ হবে বিকেল ৫টায়। ভোট শুরুর পর বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র ঘুরে ভোটারদের উপস্থিতি কম দেখা গেছে। ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী ও সমর্থকদের বিরুদ্ধে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ উঠেছে।

রানীনগর ও আত্রাই উপজেলা নিয়ে গঠিত এই নির্বাচনী এলাকায় মোট ভোটার ৩ লাখ ৬ হাজার ৭২৫ জন। ১০৪টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচনের তিন প্রার্থী হলেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন, বিএনপির শেখ রেজাউল ইসলাম ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী ইন্তেখাব আলম।

বিজ্ঞাপন
default-image

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট চলছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ভোটকেন্দ্র ও ভোটারদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।

সকাল ৯টায় রানীনগর পাইলট উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন। ভোট দেওয়ার পর সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ভোটের পরিবেশ নিয়ে তিনি সন্তুষ্ট। জয়ের ব্যাপারী শতভাগ আশাবাদী তিনি।

বিএনপির প্রার্থী শেখ রেজাউল ইসলাম ভোট দেন আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে। শেখ রেজাউল ইসলাম অভিযোগ করেন, ‘ভোট শুরুর পর থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিযোগ আসছে বিএনপির সমর্থক ও সাধারণ ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে ঢুকতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া গতকাল শুক্রবার রাতে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি ভোট কেন্দ্রে না যেতে হুমকি দিয়ে এসেছে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন।’

আজ সকালে রানীনগর উপজেলার কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, ভোটার উপস্থিতি কম। কিছু কিছু কেন্দ্রে সামান্যসংখ্যক ভোটার সারিবদ্ধভাবে ভোটার ভোট প্রদান করছেন। কিছু কেন্দ্র ফাঁকা, ভোটারদের উপস্থিতি নেই। দু-একজন করে এসে ভোট দিয়ে চলে যাচ্ছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0