বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ শুক্রবার বেলা একটার দিকে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে নুরুল হক এসব কথা জানান। প্রবাসীদের বিমানবন্দরে হয়রানি ও বিমানের টিকিটের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

মানববন্ধনে নুরুল হক জানান, দেশে যে নৈরাজ্য চলছে, এ নৈরাজ্য থেকে সহজ কোনো পরিত্রাণ নেই। রাজপথে রক্ত দেওয়া ছাড়া, রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ ছাড়া, শান্তিপূর্ণ কোনো উপায়ে এ থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যাবে না। সরকার সব পথকে বন্ধ করেছে, তারা জোর করে ক্ষমতায় আছে।

নুরুল হক বলেন, ‘আমরা যদি জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই, তাহলে রক্ত দেওয়ার জন্য আমাদের রাজপথে নামতে হবে। সুশাসন ছাড়া এ নৈরাজ্য বন্ধ হবে না।’ তিনি জানান, সরকারি হাসপাতালগুলোতে সেবা পেতে হলে মানুষকে পদে পদে ভোগান্তির স্বীকার হতে হয়। এর কি কোনো উত্তরণ ঘটেছে? দীর্ঘদিন ধরে একই চিত্র আমরা দেখে আসছি। তাই বলব, প্রতিবাদ করতে হবে। যে যেখানে অন্যায় দেখবেন, সেখান থেকেই প্রতিবাদ করুন।’

নুরুল হক আরও জানান, দেশ একটি নৈরাজ্যের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। রাজনীতির নামে দুর্বৃত্তায়ন হয়েছে এ দেশে। সম্বলহীন অনেকে রাজনীতি করে কোটিপতি হয়েছেন এ দেশে।

মানববন্ধন থেকে বিমানবন্দরে অব্যবস্থাপনা বন্ধ এবং বিমানে টিকিটের দাম না কমালে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ঘেরাও করার কর্মসূচির ঘোষণা দেন নুরুল হক।

এদিকে মানববন্ধনে গণ অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান জানান, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স সরকার পাচ্ছে। অথচ প্রবাসীদের ভোগান্তির বিষয়টি সরকার মূল্যায়ন করছে না, এটা রাজনৈতিক দলগুলোর ব্যর্থতা।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন গণ অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, তারেক রহমান, যুগ্ম সদস্যসচিব সাইফুল্লাহ হায়দার প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন