বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া বলেন, ‘দেশের অনেক দলের শীর্ষ নেতারা গণ অধিকার পরিষদের আজকের এ প্রোগ্রামে উপস্থিত হয়েছেন। আমরা সবাই মিলে যদি একসঙ্গে কাজ করি, তাহলে এই দেশকে অন্ধকার থেকে উদ্ধার করতে পারব। এই ফ্যাসিস্ট সরকারের হাত থেকে রক্ষা করতে পারব।’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি ক্রান্তিকালের মধ্য দিয়ে অতিক্রম করছে। দেশ ধ্বংসের কিনারায় পৌঁছে গেছে। আজকে যারা গায়ের জোরে ক্ষমতায় আছে, তারাই এই দেশকে ধ্বংস করেছে। দেশের জনগণ আর এই স্বৈরাচারী, ফ্যাসিস্ট সরকারকে ক্ষমতায় দেখতে চায় না।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আজ গণ অধিকার পরিষদে যোগ দেওয়া কয়েকজন হলেন অধ্যাপক মো. মাহবুব হোসেন, জেলা দায়রা জজ (অব.) শামসুল আলম, কর্নেল (অব.) মিয়া মশিউজ্জামান, মেজর (অব.) ড. বদরুল আলম সিদ্দিকী, ড. আবদুল মালেক ফরাজি, স্কোয়াড্রন লিডার (অব.) আলী মাহমুদ খান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) অধ্যাপক হাবিবুর রহমান, লেফটেন্যান্ট কমান্ডার (অব.) আবদুল বাসেত, ব্যবসায়ী মো. শাহজান বাদশাহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে গণ অধিকার পরিষদের সদস্যসচিব ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, গণ অধিকার পরিষদ আন্দোলন-সংগ্রাম, রাজপথে রক্ত দেওয়ার মাধ্যমে গড়ে ওঠা একটি দল। ভবিষ্যতেও জনগণের অধিকার আদায়ে রাজপথে থাকবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া, বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, গণ অধিকার পরিষদের সদস্যসচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন