বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে এলডিপির দুই নেতা আরও বলেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যে দেশের নারীসমাজের নিরাপত্তাহীনতা কতখানি ভয়ংকর, তা স্পষ্ট হয়েছে। মুরাদ হাসান একজন নারীকে নিয়ে যে ভাষায় কথা বলেছেন, একজন মানসিক রোগীও এমন আচরণ করবে না। রাজনৈতিক সহমর্মিতার শেষ বিন্দুটুকু এই মুরাদরা নষ্ট করে দেশকে গভীর অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিচ্ছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, এর পেছনে কেবল চক্রান্তই নয়, বাংলাদেশকে অরাজক করে তুলতে এমন মন্ত্রীরা ‘অপশক্তির প্রেতাত্মার’ ভূমিকায় নেমেছে। খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবিতে যখন সারা দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ, তখন রাষ্ট্রীয় এই কুলাঙ্গার দেশের হৃদয়ে আঘাত করেছে। নিঃসন্দেহে মুরাদের এ বক্তব্যের পেছনে গভীর ষড়যন্ত্র রয়েছে।

বিবৃতিতে এলডিপির দুই নেতা বলেন, খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে তামাশা করার পর জিয়া পরিবারের সদস্যদের নিয়ে যে মদ্যপ চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটানো হচ্ছে, দেশের মানুষ এদের মূলোৎপাটন করবে।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন