বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে বিশ্বমানের কিছু হাসপাতাল আছে এবং এ দেশে ভালো চিকিৎসা হয়। দেশে লক্ষ কোটি মানুষের চিকিৎসা হচ্ছে। কিন্তু খালেদা জিয়ার পেটব্যথার জন্য, হাঁটুব্যথার জন্য কেন বিদেশ পাঠাতে হবে? কথায় কথায় বিদেশে পাঠানোর কথা।

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপির উদ্দেশ্য রাজনৈতিক উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি চায় তিনি অসুস্থই থাকুন, তাহলে বিদেশে পাঠানোর দাবি তোলা যাবে। এ ছাড়া তিনি খালেদা জিয়ার সুস্থতাও কামনা করেন।

খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবিতে বিএনপির গণ–অনশন কর্মসূচির স্থানে আশপাশের দোকানগুলোতে ভালো বেচাবিক্রি হয়েছে বলে দাবি করেন হাছান মাহমুদ। তিনি আরও বলেন, সেখানে রাজনীতিতে গুরুত্বহীন অনেকেই গিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন নিজেদের গুরুত্ব বাড়ানোর জন্য।

বনানীতে অ্যাটকো আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নিয়ে বেরিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী। গোলটেবিলে অ্যাটকোর সভাপতি ও মাছরাঙা টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী, ডিবিসি নিউজের চেয়ারম্যান ও অ্যাটকোর সহসভাপতি ইকবাল সোবহান চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হক, বিটিভির মহাপরিচালক সোহরাব হোসেন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম, প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান, বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ, এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান, একুশে টিভির প্রধান নির্বাহী পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান, দেশটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও অ্যাটকোর সহসভাপতি আরিফ হাসান, ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের (বিজেসি) সভাপতি রেজওয়ানুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন