default-image

মানুষ মানুষের মতো বাঁচতে চায়। কথা বলতে চায়। অথচ সরকার কাউকে কথা বলতে দিতে চায় না—বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ‘নাগরিক ঐক্যে যোগ দিন’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘আমরা মানুষ। মানুষের মতো সম্মান ও অধিকার নিয়ে বাঁচতে চাই। কথা বলতে চাই। এটা মানুষের মৌলিক গণতান্ত্রিক অধিকার। সরকার সেটিও বলতে দেবে না।’

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, চালের দাম যদি ৭০ টাকা হয়ে যায়, গরুর মাংসের কেজি ৭০০ টাকা হয়, বাজারে আগুন লেগে যায়, তবু সরকারের বিরুদ্ধে এখন কোনো কথা বলা যাবে না।

বিজ্ঞাপন

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক আরও বলেন, ‘স্বাধীনভাবে জন্মেছি। স্বাধীনভাবে বাঁচব। প্রয়োজনে স্বাধীনভাবে মরব। কেউ জোর করে কণ্ঠ রোধ করতে পারবে না। কথা বলার কারণে যদি লেখক মুশতাকের মতো মৃত্যু হয়, তবু আমি বলা ছাড়ব না।’

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে মিছিল করার ঘোষণা দিয়ে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘অনেক রক্ত, জীবন ও মূল্য দিয়ে স্বাধীনতা এনেছি। স্বাধীনতা নিয়ে তারা ছিনিমিনি খেলতে পারে কিন্তু এই স্বাধীনতাকে আমরা সম্মান জানাতে চাই। এ জন্য স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আমরা রাজপথে মিছিল করব।’

নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়কারী শহীদুল্লাহ কায়সারের সঞ্চালনায় এ আয়োজনে দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মমিনুল ইসলাম ও মোফাখখারুল ইসলাম বক্তব্য দেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন