গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘হেলমেট বাহিনী গঠিত হয়েছে। এখন শুনছি যে হেলমেট (পরা হয়) আত্মরক্ষার জন্য। কিন্তু হেলমেট বাহিনী মারামারি করতে গেছে বলেই তো হেলমেট নিয়ে গেছে। নিউমার্কেটের দোকানদারেরা তো হেলমেট নিয়ে যাননি। হেলমেট বাহিনী নতুন কিছু নয়, অনেক পুরোনো ঘটনা। তাদের (সরকার) যেমন হেলমেট বাহিনী আছে, জনগণ যখন হাতুড়ি বাহিনী গড়ে তুলতে পারবে, তখনই তাদের পরাজিত করা যাবে।’

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, নিউমার্কেটের ঘটনায় যাঁদের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে, তাঁদের একজন ২০ বছর ধরে বিদেশে। এই দেশে মৃত মানুষের নামেও অনেক মামলা আছে। নিউমার্কেট এলাকায় যে ঘটনা ঘটেছে, তাতে ঢাকা কলেজের অগ্রজরা কষ্ট পান। দোষটা ছাত্রদের নয়, দোষ এই সরকারব্যবস্থা ও সরকারপ্রধানের চাওয়ার। তারা ছাত্রদের লেখাপড়া করতে দিতে চায় না। খুনখারাবি, চাঁদাবাজি, নারীদের ইজ্জত নিয়ে টানাটানি ইত্যাদি প্রতিদিন ঘটছে। তারপরও পুলিশ মামলা করে না।
সমাবেশে বিএনপির যুববিষয়ক সহসম্পাদক ও ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি মীর নেওয়াজ আলী বলেন, ঢাকা কলেজকে দলীয়ভাবে ব্যবহার করে ধ্বংস করে দিয়েছে আওয়ামী লীগ। নিউমার্কেট এলাকাজুড়ে ছাত্রলীগ প্রতিদিন লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায় করে। একে কেন্দ্র করেই হাতুড়ি লীগ, চাপাতি লীগ ও হেলমেট বাহিনী সম্প্রতি তিন দিন ধরে তাণ্ডব চালিয়েছে। কিন্তু মামলা দেওয়া হয়েছে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে। কী নির্লজ্জতা!

সরকারের ‘উচ্চপর্যায়ের সিদ্ধান্তেই’ নিউমার্কেটে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেন বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক ও ঢাকা কলেজ শাখা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আসাদুল করিম। তিনি বলেন, এটা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। এটা সম্পূর্ণ পরিকল্পিত। মানুষের আন্দোলন স্তব্ধ করতে হেলমেট বাহিনী কতটুকু সক্ষম, তা পরীক্ষা করা হলো।

স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আবদুল কাদির ভূঁইয়া অভিযোগ করেন, নিউমার্কেট এলাকার অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় পরিকল্পিতভাবে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে।

প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি ও বিএনপির স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী। ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি ও বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশিদের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস জাকির হোসেন, যুবদলের সহসাধারণ সম্পাদক কামাল আনোয়ার আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি আওলাদ হোসেন প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন