বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এদিকে রওশন এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় বৃহস্পতিবার দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে জাপা। সেখানে দলের চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, রওশন এরশাদের রক্তচাপ ও হৃৎস্পন্দন ভালো আছে, কিন্তু তিনি নিস্তেজ অবস্থায় আছেন। চিকিৎসকেরা মত দিলে তাঁকে বিদেশে নেওয়া হবে। শুক্রবারও সারা দেশে দোয়া অনুষ্ঠান আয়োজনে নেতা-কর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছেন জি এম কাদের।

দল ও পারিবারিক সূত্র জানায়, ফুসফুসের সংক্রমণে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গত ১৪ আগস্ট রওশন এরশাদকে সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। সে সময় বেশ কিছুদিন তিনি আইসিইউতে ছিলেন। পরে তাঁকে কেবিনে নেওয়া হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে ২০ অক্টোবর আবার তাঁকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। রওশন ময়মনসিংহ-৪ আসনের সাংসদ।

এ বিষয়ে রওশন এরশাদের ছেলে ও রংপুর-৩ আসনে জাপার সাংসদ রাহগির আল মাহি সাদ এরশাদ প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর মূল সমস্যা বার্ধক্য। শরীর খুবই দুর্বল। যে কারণে কথা বলতে পারছেন না। তবে অবস্থা আগের চেয়ে উন্নতির দিকে। অক্সিজেন লেভেলও বেড়েছে। সাদ এরশাদ মায়ের সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন