বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করিম বলেন, ‘আইয়্যামে জাহেলিয়াতের ঘোর অন্ধকারে নিমজ্জিত আরব জাতি রাসুল (সা.)–এর আদর্শের ছোঁয়ায় তাঁর নবুওয়াতের মাত্র ২৩ বছরেই এক নতুন পৃথিবী বিনির্মাণ করেছে। তাই সামাজিক অবক্ষয় রোধ, অন্যায়-জুলুম ও অনৈতিকতার হাত থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করতে জীবনের সর্বক্ষেত্রে রাসুল (সা.)–এর আদর্শ অনুসরণ করতে হবে।’

সম্মেলনে ইসলামী আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ বলেন, দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার জন্য পরিকল্পিতভাবে পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখা হয়েছে। পূজামণ্ডপ, মন্দির, হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলায় ইসলামপন্থীরা জড়িত, সে কথা কেউ প্রমাণ করতে পারেনি। এরপরও এর রেশ ধরে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে মসজিদ, মুসলমানদের বাড়িঘর ও দোকানপাটে হামলা চালানো হচ্ছে।

দলের মহাসচিব ইউনুছ আহমাদ বলেন, অশান্তি দূর করে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য রাসুল (সা.)–এর আদর্শ প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

দলের যুগ্ম মহাসচিব গাজী আতাউর রহমান বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছিলেন, তিনি মদিনা সনদ অনুযায়ী দেশ চালাবেন। কিন্তু রহস্যজনক কারণে তিনি তা ভুলে গেছেন। মানুষের মনগড়া আইন মদিনা সনদ স্বীকৃতি দেয় না।’
সিরাত সম্মেলনে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় জয়ী কোরআনের হাফেজ ও ক্বারিদের সম্মাননা প্রদানসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিযোগীদের পুরস্কার দেওয়া হয়।

ইসলামী আন্দোলনের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ইসলামবিষয়ক লেখক যাইনুল আবিদীন প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন