প্রস্তাবিত শিক্ষা আইন-২০১৬ বাতিলের পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। নইলে আন্দোলন কত প্রকার ও কী কী, তা দেখিয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছে দলটি।

আজ শুক্রবার জুমার নামাজের পর রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর সড়কে এক বিক্ষোভ সমাবেশে ইসলামী আন্দোলনের ঢাকা মহানগর কমিটির সভাপতি এ টি এম হেমায়েতউদ্দিন এ হুমকি দেন। ‘নাস্তিক্যবাদী শিক্ষা আইন বাতিলের দাবিতে’ সংগঠনটি বিক্ষোভ সমাবেশ করে।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলনের আমির সৈয়দ রেজাউল করিম প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পাঠ্যবই থেকে ইসলামি সংস্কৃতি-বিষয়ক রচনা, কবিতা ও মহানবী (সা.)-এর জীবনচরিত বাদ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘এভাবে যে শিক্ষায় নাস্তিক্যবাদ শেখানো হয়, সে বই আমরা পড়ব না। শুনেছি প্রধানমন্ত্রী নামাজ পড়েন। আমার মনে হয়, তাঁর অগোচরে এসব বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ এক বিরাট ষড়যন্ত্র। এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।’

সংগঠনের মহাসচিব ইউনুছ আহমাদ প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী, আপনি চোখ খুলুন। আপনি চোখ বন্ধ করে বসে থাকলে জাতি ধ্বংস হয়ে যাবে। এর দায় আপনার। না হলে তৌহিদি জনতা রাস্তায় নামবে।’

সমাবেশ শেষে বায়তুল মোকাররমের উত্তর সড়ক থেকে পুরানা পল্টন, দৈনিক বাংলা এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন ইসলামী আন্দোলনের নেতা-কর্মীরা।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন