মঙ্গলবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ আয়োজিত বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সীমাহীন লুটপাট ও রেলের দুর্নীতি অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশে নুরুল হক এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, সরকার ভাঁওতাবাজির উন্নয়ন দেখাচ্ছে। সরকার দীর্ঘদিন ধরে বলে আসছে, বিদ্যুৎ রপ্তানি করবে। সক্ষমতার চেয়ে বেশি উৎপাদন হচ্ছে। তাহলে তো বিদ্যুৎ উদ্বৃত্ত রয়েছে। তবে লোডশেডিং কেন হচ্ছে?

সরকার জনগণকে ধোঁকা দিচ্ছে অভিযোগ করে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক বলেন, জনগণ ভুক্তভোগী। কুইক রেন্টালের নামে কুইক লুটপাট হয়েছে। এই প্রকল্পের জন্য হাজার হাজার কোটি টাকার ক্যাপাসিটি চার্জ দেওয়া হচ্ছে, যা সরকারি দলের মাফিয়াদের পকেটে ঢুকছে।

দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়েছে মন্তব্য করে নুরুল হক বলেন, সমাজের মূল্যবোধের অবক্ষয় হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় সংখ্যালঘুর ওপর হামলা হচ্ছে। কোনো বিচার হচ্ছে না। তিনি এসব ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেন। তিনি আরও বলেন, সরকার গোঁজামিল দিয়ে গত ১৩ বছর ধরে শাসন করে আসছে। আগামী দিনে তাদের এই গোঁজামিল দিয়ে পার হতে দেওয়া হবে কি না, সে সিদ্ধান্ত জনগণকে নিতে হবে।

নুরুল হক বলেন, বিরোধী দলগুলো যদি নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া করে রাজপথে নামে, তাহলে ক্ষমতাসীনদের ক্ষমতায় থাকার স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে। তিনি সরকারকে পদত্যাগ করে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান জানান।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন