আজ বৃহস্পতিবার শহীদ নূর হোসেন দিবস। ১৯৮৭ সালের এদিনে তৎকালীন স্বৈরশাসক এইচ এম এরশাদের বিরুদ্ধে বুকেপিঠে ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তি পাক’ লিখে মিছিল করছিলেন নূর হোসেন। মিছিলটি রাজধানীর জিরো পয়েন্ট (বর্তমান শহীদ নূর হোসেন চত্বর) এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ গুলি চালায়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে নূর হোসেন শহীদ হন।

আজ দিনটি উপলক্ষে শহীদ নূর হোসেন স্কয়ারে ও মুক্তিভবনের সিপিবি কার্যালয়ে শহীদ সৈয়দ আমিনুল হুদা টিটোর প্রতিকৃতিতে সিপিবির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময় রুহিন হোসেন বলেন, ১৯৯০-এর গণ-অভ্যুত্থানের পর যারা পালাক্রমে দেশ শাসন করেছে, তারা তিন জোটের রূপরেখা বাস্তবায়ন করেনি, বরং উল্টো পথে চলেছে। আজও তিন জোটের রূপরেখা ও আচরণবিধি প্রাসঙ্গিক।

রুহিন হোসেন আরও বলেন, দুঃশাসনের অবসানের সঙ্গে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের অঙ্গীকার বাস্তবায়নে ব্যবস্থা বদলের সংগ্রাম অগ্রসর করতে হবে। এ জন্য নীতিনিষ্ঠ শক্তির বিকল্প শক্তি সমাবেশ গড়ে তুলতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিপিবির সহকারী সাধারণ সম্পাদক মিহির ঘোষ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জলি তালুকদার, লুনা নূর, হাসান তারিক চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন রেজা, মানবেন্দ্র্র দেব প্রমুখ।