সারা দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩০ লাখ শীতবস্ত্র দিয়েছেন জানিয়ে সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শীতে মানুষ কষ্টে আছে। আমরা মানুষের পাশে আছি। মানুষের যেকোনো কষ্টে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পাশে ছিলাম, আছি, থাকব।’

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিরোধী দল বিএনপির সমালোচনা করে বলেন, জনগণ আওয়ামী লীগের সঙ্গে আছে, বিএনপির সঙ্গে নেই। টেমস নদীর পাড় থেকে আসা অদৃশ্য নির্দেশে চলা বিএনপি রাজনীতিকে নষ্ট করেছে। এর অবসান হতে হবে। এ  থেকে  বের হয়ে আসতে না পারলে বিএনপি কখনো আন্দোলন ও নির্বাচনে সফল হবে না।

বিএনপি গণতন্ত্র এবং মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ‘হত্যাকারী’ দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা কী করে রাষ্ট্র মেরামত করবে, যারা এক কোটি ভুয়া ভোটার, ভুয়া ভোটের জন্ম দিয়েছিল। রাষ্ট্র মেরামত করবে শেখ হাসিনার সরকার। এ দেশে প্রথম নির্বাচন কমিশন আইনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত করেছে তাঁর সরকার (আওয়ামী লীগ সরকার)।’ তিনি আরও দাবি করেন, দেশের গণতন্ত্র ও নির্বাচন ব্যবস্থা বিএনপি ধ্বংস করেছে।

মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লুর ঢাকা সফরের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ডোনাল্ড লু আসার পর বিএনপি নেতারা হাসপাতালে কেন গেছেন? অদৃশ্য নির্দেশে আন্তর্জাতিক মহলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার মিশনে বিএনপি আন্দোলন করেছিল। তারাই দেশে নষ্ট রাজনীতির জন্ম দিয়েছে। এই পথ থেকে বেরিয়ে আসতে না পারলে কখনোই আন্দোলনে সফল হবে না। নির্বাচনেও সফল হবে না বিএনপি। তারা ভণ্ডামির রাজনীতি করছে। নির্বাচন মোকাবিলায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা রাজপথে আছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান। আরও বক্তৃতা করেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান, সহসভাপতি কাদের খান, দপ্তর সম্পাদক উইলিয়াম প্রলয় সমদ্দার প্রমুখ।