গণ অধিকার পরিষদের ঢাকা মহানগর উত্তরের নবগঠিত কমিটির সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নুরুল হক এ কথা বলেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

‘দেশকে ঋণে জর্জরিত করে দেউলিয়ার দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে’ বলে মন্তব্য করেন নুরুল হক। তিনি বলেন, দেশে রিজার্ভ–সংকট শুরু হয়েছে। বিদেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে ঋণ চেয়েছে সরকার, তা দিয়ে বর্তমান সংকট সামাল দিতে পারলেও সাত-আট বছর পর দেশ মহাসংকটে পড়বে।

গত ১০ বছরে কুইক রেন্টালের নামে সরকারের ঘনিষ্ঠ লোকজন ৭০ হাজার কোটি টাকা লুটপাট করেছে বলে দাবি করেন নুরুল হক। তিনি বলেন, কেউ লুটপাট করে নিয়ে যাচ্ছে আর সাধারণ মানুষ থাকা-খাওয়ার জন্য যা দরকার তা–ও পাচ্ছে না।
গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া বলেন, এ সরকারের অধীন দেশে গণতান্ত্রিক সব অধিকার খর্ব হয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি এ পরিস্থিতির অবসান হবে বলে রেজা কিবরিয়ার ধারণা। তিনি বলেন, একটা নতুন অধ্যায় বাংলাদেশের রাজনীতিতে শুরু হবে। সেই অধ্যায়ে গণ অধিকার পরিষদের বড় ভূমিকা থাকবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন গণ অধিকার পরিষদের ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক কর্নেল (অব.) মিয়া মশিউজ্জামান, সদস্যসচিব মো. জিয়াউর রহমান প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন