জাতীয়তাবাদী যুবদলের ফেনী জেলা সভাপতি জাকির হোসেনকে রাজধানী থেকে গ্রেপ্তার ও ফেনীতে তাঁর বাড়ি থেকে ‘বোমা ও অস্ত্র উদ্ধারের’ পর তাঁকে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় মির্জা ফখরুল ইসলাম এ বিবৃতি দেন। তিনি দাবি করেন, জাকির হোসেনকে ধরে নিয়ে পরিবার-পরিজনের সামনে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে পূর্বপরিকল্পিতভাবে বাসা থেকে বোমা ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

বিবৃতিতে বিএনপির মহাসচিব বলেন, বিরোধী দলের অস্তিত্বই যেন সরকারের কাছে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই নির্বিচার গ্রেপ্তার, মিথ্যা মামলা সাজানোর জন্য পরিকল্পিত ঘটনা তৈরি করাসহ নানা অপকর্মই এখন সরকারের একমাত্র কর্মসূচি। এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে সরকার প্রশাসন ও পুলিশকে নির্লজ্জভাবে ব্যবহার করছে। তারই ধারাবাহিকতায় যুবদল নেতা জাকির হোসেনকে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান শাসকগোষ্ঠী অনাচার আর কুকীর্তিতে দেশকে ভরিয়ে দিয়েছে। ক্ষমতাসীনদের লুট, হরিলুট, টাকা পাচার, গুম, খুন আর মহা দুর্নীতির কাহিনি এখন মানুষের মুখে মুখে। মেগা প্রজেক্টগুলোয় মেগা দুর্নীতিতে দেশকে অন্ধকার খাদের প্রান্তে টেনে নিয়ে আসা হয়েছে। দেশের মধ্যম আয় ও নিম্ন আয়ের মানুষ জীবনধারণের অবলম্বন হারিয়ে ফেলেছে। অর্থনীতির প্রতিটি সূচকই এখন নিম্নগামী। দেশের আর্থিক খাত লোপাট করাতে সরকার ক্রমাগতভাবে সহযোগিতা করে এসেছে। কারণ, এই লুটপাটের হোতারা সরকারের তল্পিবাহক।

বিবৃতিতে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে করা মামলাটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে তা প্রত্যাহার এবং তাঁর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান বিএনপির মহাসচিব।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন