সাবিহ উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে মস্তিষ্কের জটিলতায় ভুগছিলেন বলে জানা গেছে।

শায়রুল কবির খান বলেন, সাবিহ উদ্দিনের জানাজা কখন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে, তা এখনো ঠিক করা হয়নি। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে পরে তা জানানো হবে।

১৯৯১ সালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে সরকারের সময় প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব ছিলেন সাবিহ উদ্দিন। এরপর ২০০১ সালে বিএনপি আবার ক্ষমতায় এলে তিনি বন ও পরিবেশ মন্ত্রনালয়ের সচিব এবং যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার ছিলেন বলে বিএনপির সূত্র জানিয়েছে।

সরকারি চাকরি থেকে অবসরের পর তিনি বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত হন। আমৃত্যু তিনি বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ছিলেন।