যেভাবেই হোক গ্রহণযোগ্যভাবে নির্বাচন করার চেষ্টা করবেন বলে জানান সিইসি। তিনি বলেন, সুন্দর সংসদ ও সরকার গঠিত হোক, এটা তাঁরা চান। আলোচনা ও সংগ্রামের মাধ্যমে বিএনপিকে দাবি প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলেন তিনি। কারণ, এটির সঙ্গে সংবিধান জড়িত।

নির্বাচনের সময় বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ইসির অধীন আনার প্রস্তাব বাস্তবায়ন জটিল বলে মনে করেন সিইসি। তিনি বলেন, এর সঙ্গে জটিল সাংবিধানিক বিষয় জড়িত রয়েছে। এটি নিয়ে সব রাজনৈতিক দল নিজের মধ্যে সংলাপ করতে পারে। নির্বাচন কমিশনের অনেক ক্ষমতা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অতীতে হয়তো কোনো কারণে সেই ক্ষমতা পুরোপুরি প্রয়োগ করতে পারেনি। কিন্তু আমরা সেটি প্রয়োজনে প্রয়োগ করার চেষ্টা করব।’

সকালে স্বাগত বক্তব্যে সিইসি বলেন, ‘বিএনপিসহ কয়েকটি দল আগাম অনাস্থা দিয়েছে। এ বিষয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই। কী বিশেষ সুবিধা নিয়ে পক্ষপাতদুষ্ট হলাম, তা বুঝতে পারছি না। বিএনপি যদি আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা বা অন্য কোনোভাবে নতুন ব্যবস্থাপনায় নির্বাচনে আসে, তাহলে আমাদের কোনো আপত্তি থাকবে না।’

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন